মিবার-গৌরব-কথা

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
মিবার-গৌরব-কথা
মিবার-গৌরব-কথা।
শ্রীহেমলতা দেবী।

মিবার-গৌরব-কথা ।

শ্রীহেমলতা দেবী।

‘ভারতবর্ষের ইতিহাস’, ‘নেপালে বঙ্গনারী’ ও ‘চিরদিন

কি দুঃখে যায়’ গ্রন্থ প্রণেত্রী।

এস, কে, লাহিড়ি এণ্ড কোং,

৫৬ নং কলেজ স্ট্রীট, কলিকাতা।

মূল্য ৷৵৹ আনা।



২১১নং কর্ণওয়ালিস ষ্ট্রীট, ব্রাহ্মমিশন প্রেস হইতে

শ্রী অবিনাশচন্দ্র সরকার দ্বারা মুদ্রিত।



ভূমিকা

 মহাত্মা টড্ সাহেব রাজস্থানের যে ইতিবৃত্ত সংগ্রহ করিয়া গিয়াছেন তাহা অতি অপূর্ব্ব গ্রন্থ। বঙ্গভাষায় তাহা অনুবাদিত হইয়াছে বটে কিন্তু বিদ্যালয়ের ছাত্রগণ তাহা পাঠ করিয়া উঠিতে পারে না। এই বৃহৎ গ্রন্থখানিতে কত যে অপূর্ব্ব কাহিনী বিবৃত আছে তাহা পাঠ করিলে হৃদয় অভূতপূর্ব্ব ভাবে পূর্ণ হয়। এ সকল উপন্যাস নয়, কল্পনার চিত্রও নয় ভারত সন্তানের অপূর্ব্ব আত্মত্যাগ বীরত্ব কাহিনী, এই গ্রন্থে লিপিবদ্ধ হইয়াছে। ছাত্রাবস্থাতেই বালকদিগের চরিত্র গঠিত হয়। মানব চরিত্রের শ্রেষ্টতম বৃত্তি পুরুষকার ও কর্ত্তব্যনিষ্ঠা। মানব চরিত্রের সমুদায় ঐশ্বর্য্যই মানবের চিত্তবৃত্তিতে নিহিত। রাজস্থানের পত্রে পত্রে নরের বীরত্ব নারীর সতীত্ব ও আত্মত্যাগ কাহিনীতে পরিপূর্ণ। রাজস্থানের মুকুট মণি মিবারের ঐতিহাসের পৃষ্ঠা হইতে কয়েকটি মনােরম গল্প উদ্ধৃত করিয়া বঙ্গ দেশের বালক বালিকাদিগের হস্তে অর্পণ করিলাম। ইহা পাঠ করিলে সকলেরই হৃদয় উন্নত হইবে সন্দেহ নাই।

গ্রন্থকর্ত্রী—

সূচীপত্র।

১।
২।
৩। ১৪
৪। ১৮
৫। ২৩
৬। ২৭
৭। ৩৩
৮। ৪৩
৯। ৫০
১০। ৬০
১১। ৬৫
১২। ৬৯

এই লেখাটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পাবলিক ডোমেইনে অন্তর্গত কারণ এটি ১৯২৭ খ্রিষ্টাব্দের ১লা জানুয়ারির পূর্বে প্রকাশিত।


লেখক ১৯৪৩ সালে মারা গেছেন, তাই এই লেখাটি সেই সমস্ত দেশে পাবলিক ডোমেইনে অন্তর্গত যেখানে কপিরাইট লেখকের মৃত্যুর ৭৫ বছর পর্যন্ত বলবৎ থাকে। এই রচনাটি সেই সমস্ত দেশেও পাবলিক ডোমেইনে অন্তর্গত হতে পারে যেখানে নিজ দেশে প্রকাশনার ক্ষেত্রে প্রলম্বিত কপিরাইট থাকলেও বিদেশী রচনার জন্য স্বল্প সময়ের নিয়ম প্রযোজ্য হয়।