লেখক:তারকনাথ দাস

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
তারকনাথ দাস
(১৮৮৪–১৯৫৮)
তারকনাথ দাস (১৫৬১৮৮৪ - ২২-১২-১৯৫৮) মাঝিপাড়া -_ চবিবশ পরগনা । কালীমোহন। স্কুলের ছাত্রাবস্থায় রাজনৈতিক কাজের সঙ্গে যুক্ত হন। ১৯০১ হ্বী কলিকাতার আর্য মিশন ইন্স্টিটিউশন থেকে এন্ট্রাস পাশ করে কিছুদিন কলেজে পড়েন। ছাত্রাবস্থায় উত্তর ভারতে বৈপ্লবিক রাজনীতি প্রচারকালে পুলিসের নজরে আসেন। কিন্তু গ্রেপ্তার হবার আগেই ১৯০৫ শ্রী. জাপানে ও ১৯০৬ শ্রী: আমেরিকা যান এবং ভারমন্ট সামরিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। ছাত্রজীবনে নানা বিপ্লবী দলের সঙ্গে বিভিন্ন ব্যাপারে জড়িত থাকাকালে রামকৃষ্ঃ মিশনের মাধ্যমে স্বামী বিবেকানন্দের আদর্শে উদ্ুদ্ধ হন। আমেরিকায় তিনি “ক্রি হিন্দুস্তান, পত্রিকার মাধ্যমে স্বাধীনতা সংগ্রামের দ্বিতীয় পর্যায় শুরু করেন এবং সেখানে থেকে গদর পাটির সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করেন। ১৯১১ শী: এএম" পাশ করে ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের পলিটিক্যাল সায়েন্স্‌ বিভাগের ফেলো হন এবং ১৯১৪ শ্রী" মার্কিন নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন। ১৯১৬ শ্রী: বার্লিন কমিটির প্রতিনিধিরূপে চীন যাত্রা করে সেখানকার প্রবাসী ভারতীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনের চেষ্টা করেন। ১৯১৭ থ্রী শৈলেন ঘোষ আমেরিকায় আসার পর তার সহযোগিতায় যুক্তরাষ্ট্রে সরকারের কাছে ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে সাহায্যের আবেদন জানান। মার্কিন সরকার এই অপরাধের অভিযোগে তাকে ২২ মাস কারাদণ্ড দেয়। ১৯২৪ শ্রী- ওয়াশিংটন জর্জ টাউন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি “আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও আন্তর্জাতিক আইন' বিষয়ের উপর পি-এইচ- ডি. ডিগ্রী পান। এ বছরই এক মার্কিন মহিলাকে বিবাহ করেন। ১৯২৫ - ৩৪ শ্রী- ইউরোপে বাস কালে ভারতীয় ছাত্রদের বিজ্ঞানে উচ্চশিক্ষার সুযোগ-সুবিধার জন্য প্রায় একক চেষ্টায় মিউনিকে ইন্ডিয়া ইন্স্টিটিউট' প্রতিষ্ঠা করেন। এই উদ্দেশ্যেই “তারকনাথ দাস ফাউন্ডেশনের উদ্তব। ১৯৩৫ শ্রী: এ ফাউন্ডেশন আমেরিকায় রেজিষ্ট্রীকৃত হয় ১৯৫০ শ্ী- কলিকাতায়ও তার একটি শাখা রেজিস্ট্রি করা হয়। তিনি নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করতেন। ১৯৫২ শ্ী- ওয়াটমুল ফাউন্ডেশনের ভ্রাম্যমাণ সদস্য ও অধ্যাপক হিসাবে বিশ্বপরিক্রমাকালে দেশত্যাগের ৪৭ বৎসর পর ভারতবর্ষে এসেছিলেন। “মডার্ন রিভিউ" পত্রিকায় রচিত প্রবন্ধাবলী প্রকাশ করতেন। ১৯৩৫ শ্রী- ক্যাথলিক শীর্ষক বক্তাবলী বিশেষ সাড়া জাগায় এবং পরে পুস্তকাকারে প্রকাশিত হয়। রচিত গ্রস্থগুলির মধ্যে ইন্ডিয়া ইন ওয়ার্ড পলিটিক্স ও বাংলায় “বিশ্বরাজনীতির কথা” বিশেষ উল্লেখযোগ্য । নিউ ইয়র্কে মৃত্যু।
Tarak Nath Das (it); তারকনাথ দাস (bn); Tarak Nath Das (fr); தாரக்நாத் தாசு (ta); Tarak Nath Das (ast); Таракнат Дас (ru); Tarak Nath Das (sl); Tarak Nath Das (de); ତାରକ ନାଥ ଦାସ (or); Tarak Nath Das (ga); Tarak Nath Das (ca); Tarak Nath Das (sq); Tarak Nath Das (da); تارکناتھ داس (pnb); ਤਾਰਕਨਾਥ ਦਾਸ (pa); తారక్ నాథ్ దాస్ (te); تاراك ناث داس (arz); Tarak Nath Das (sv); Tarak Nath Das (pl); താരക് നാഥ് ദാസ് (ml); Tarak Nath Das (nl); तारकनाथ दास (ne); तारकनाथ दास (hi); ತಾರಕನಾಥ್ ದಾಸ್ (kn); Tarak Nath Das (fi); Tarak Nath Das (en); Tarak Nath Das (es); Taraknath Das (cs); Tarak Nath Das (pap) তারকনাথ দাস ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন অন্যতম বিপ্লবী নেতা এবং একজন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বুদ্ধিজীবী। (bn); académicu indiu (1884–1958) (ast); индийский учёный и политик (ru); भारतीय क्रांतिकारी (hi); భారతీయ విప్లవకారుడు (te); ଭାରତୀୟ କ୍ରାନ୍ତିକାରୀ (or); réabhlóidí Indiach (ga); ਭਾਰਤੀ ਕ੍ਰਾਂਤੀਕਾਰੀ (pa); Indiaas academicus (1884-1958) (nl); Indian revolutionary (en) Taraknath Das (en); Дас, Таракнат (ru); Tarak Nath Das (cs); ତାରକନାଥ ଦାସ (or)
তারকনাথ দাস 
তারকনাথ দাস ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন অন্যতম বিপ্লবী ন
মিডিয়া আপলোড করুন
স্থানীয় ভাষায় নামতারকনাথ দাস
জন্ম তারিখ১৫ জুন ১৮৮৪
মাঝিপাড়া
মৃত্যু তারিখ২২ ডিসেম্বর ১৯৫৮
নিউ ইয়র্ক শহর
নাগরিকত্ব
  • ব্রিটিশ ভারত (১৮৮৪–১৯১৪)
  • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (১৯১৪–১৯৫৮)
শিক্ষালাভ করেছেন
  • কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়
  • স্কটিশ চার্চ কলেজ
  • Norwich University
  • জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয় (ডক্টর অব ফিলোসফি, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, –১৯২৪)
পেশা
  • academic
  • বিপ্লবী
  • লেখক
  • বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক
নিয়োগকর্তা
  • কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়
  • নিউ ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়
কাজের ক্ষেত্র
  • রাষ্ট্রবিজ্ঞান
মাতৃভাষা
  • বাংলা ভাষা
লেখার ভাষা
  • ইংরেজি ভাষা
  • বাংলা ভাষা
Reasonator pixel logo.png Wikidocumentaries-logo.png
উইকিউপাত্তে তথ্যছকের উপাত্ত সম্পাদনা করুন



সাহিত্যকর্ম[সম্পাদনা]

  • বিশ্বরাজনীতির কথা


এই লেখকের আংশিক বা সব রচনাগুলি বর্তমানে পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত কারণ এটির উৎসস্থল ভারত এবং ভারতীয় কপিরাইট আইন, ১৯৫৭ অনুসারে এর কপিরাইট মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে। লেখকের মৃত্যুর ৬০ বছর পর (স্বনামে ও জীবদ্দশায় প্রকাশিত) বা প্রথম প্রকাশের ৬০ বছর পর (বেনামে বা ছদ্মনামে এবং মরণোত্তর প্রকাশিত) পঞ্জিকাবর্ষের সূচনা থেকে তাঁর সকল রচনার কপিরাইটের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যায়। অর্থাৎ ২০২১ সালে, ১ জানুয়ারি ১৯৬১ সালের পূর্বে প্রকাশিত (বা পূর্বে মৃত লেখকের) সকল রচনা পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত হবে।