শৃঙ্গার নিরুপণ

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ब्रलगधी । ፴ዓ8 i Nosło ogļła įėjļs


আদ্যরসের নিরূপণ
আদ্যরসের দুই ভেদ শুনহ প্রয়োগ। প্রথমতঃ বিপ্রলম্ভ দ্বিতীয় সম্ভোগ।।

বিপ্রলম্ভ
বিপ্রলম্ভ চারিমত শুনহ প্রকাশ। পূর্ব্বরাগ মান প্রেম বৈচিত্ত্য প্রবাস।।

পূর্ব্বরাগ
অঙ্গসঙ্গ হওনের পূর্ব্ব যে লালস। তারে বলি পূর্ব্বরাগ তাহে দশ দশা।।
লালস উদ্বেগ জড় কৃশ জাগরণ। ব্যগ্র রোগা বায়ু মোহ নিদানে মরণ।।
প্রত্যেক বলিতে হয় কবিতা বিস্তর। অনুভবে বুঝে লবে নাগরীনাগর।।

মান
যেই ক্রোধে দম্পতির রসের বিচ্ছেস। সেই মান অহেতু সহেতু দুই ভেদ।।
অহেতু যে মান সেই অনায়াসে বধ্য। সহেতুর তিন ভেদ গুরু লঘু মধ্য।।
অন্যার সহিত পতি যদি কথা কয়। তাহে জন্মে লঘুমান বাক্যে দূর হয়।।
অন্য নামগুণ পতি যদি কানে লয়। তাহে জন্মে মধ্যমান পরীক্ষায় ক্ষয়।।
অন্য ভোগচিহ্ন যদি দেখে পতিগায়। তাহে জন্মে গুরুমান প্রমাণেতে যায়।।
সাম ভেদ ক্রিয়া দান নতি ত্যাগ রোষ। এই সাত মান ভাঙ্গে হয় পরিতোষ।।
প্রিয়বাক্যে স্তব করে তারে বলি সাম। আত্মগুণ তার দোষ ভেদ তার নাম।।
সখী দ্বারা ভয় প্রদর্শন সেই ক্রিয়া। দান যাহে বস্ত্র মাল্য ভূষণাদি দিয়া।।
নতি সেই যাহে পায় ধরে নমস্কার। ঔদাস্য প্রকাশ সেই ত্যাগ নাম যার।।
রোষ সেই যাহে ভয় কষ্টের বিস্তার। মান শান্তি চিহ্ন অশ্রু লোমাঞ্চ সীৎকার।।
অবশ্য এ সব রূপে মানের বিকাশ। অসাধ্য হইলে তারে বলি রসাভাস।।
প্রত্যেক বর্ণিতে হয় কবিতা বিস্তর। অনুভবে বুঝে লবে নাগরী নাগর।।

প্রেমবৈচিত্ত্য
নিকটে পরম অনুরাগের নিমিত্ত। ছলায় বিরহ হয় সে প্রেমবৈচিত্ত্য।।

প্রবাস
প্রবাস দ্বিমত হয় নিকট ও দূর। দশ দশা হয় তাহে বিষাদ প্রচুর।।
প্রথমেতে চিন্তা দ্বিতীয়েতে জাগরণ। তৃতীয়েতে উদ্বেগ চতুর্থে ক্ষীণতন।।
পঞ্চমে মিলন ষষ্ঠে প্রলাপ বিষাদ। সপ্তমেতে ব্যাধি হয় অষ্টমে উন্মাদ।।
নবমেতে মোহ হয় দশমে মরণ। অনুভবে বুঝে লবে দেখিয়া লক্ষণ।।

সহবাস
সহবাসে চারি ভেদ করিয়া বাখান। সংক্ষিপ্ত সঙ্কীর্ণ সম্পূর্ণ সমৃদ্ধিমান্।।
পূর্ব্বরাগ পরে অল্প প্রিয়সম্ভাষণ। সংক্ষিপ্ত তাহার নাম চিত্তবিনোদন।।
মানান্তে পতির সঙ্গে মিলন যে হয়। সঙ্কীর্ণ তাহার নাম কবিগণ কয়।।
কিঞ্চিৎ প্রবাস পরে হয় যে মিলন। সম্পূর্ণ তাহার নাম কহে কবিগণ।।
সুদূর প্রবাস পরে মিলন যে রস। সে রস সমৃদ্ধিমান্ দম্পতি অবশ।।

সহবাসের প্রকার
দর্শন স্পর্শন কথা পথরোষ বাস। বনখেলা জলখেলা গীতবাদ্য হাস।।
লুক্কাওন মধুপান আদি নানা মত। অনন্ত অনন্তভাব বিরচিব কত।।

দর্শন
দরশন তিনমত নাগরী নাগরে। সাক্ষাতে স্বপন আর পটে চিত্রধরে।।

সাক্ষাৎ দর্শন
নয়নে নয়ন : বদনে বদন : চরণে চরণ আদেশি রহ।
হৃদয়ে হৃদয় : প্রাণ সমুদয় : পরাণে আলয় ভাঙ্গিয়া লহ।।
গমনে গমন : রমণে রমণ : বচনে বচন বিনয় কহ।
পেয়েছি দরশ : পরম পরশ : সকলে সরস হইয়া রহ।।

স্বপ্ন দর্শন
নিদ্রার আবেশে : রজনীর শেষে : মনোহর বেশে : বঁধু আসিয়া।
প্রেমপারাবার : করিল বিস্তার : নাহি পাই পার : যাই ভাসিয়া।।
সে সরস হইল : মনেতে রহিল : সে কথা কহিল : মৃদু হাসিয়া।
ধরম করম : সরম ভরম : নরম মরম : গেল নাশিয়া।।

চিত্র দর্শন
দেখিবারে চিত্র : করিলাম চিত্র : এ বড় বিচিত্র : হইল তায়।
দেখিতে বদন : মাতিলেক মন : ছাড়িয়া সদন : চেনন যায়।।
না পানু দেখিতে : নারিনু রাখিতে : লিখিতে লিখিতে হইল দায়।
চিত্রের পুতুল : করিল আকুল : হারানু দুকূল : চিত্রের প্রায়।।