শ্রীশ্রীকালী কীর্ত্তন/জান না রে মন, পরম কারণ, কালী কেবল মেয়ে নয়

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

জান না রে মন, পরম কারণ, কালী কেবল মেয়ে নয়।
মেঘের বরণ করিয়ে ধারণ, কখন কখন পুরুষ হয়।।
হয়ে এলোকেশী, করে লোয়ে অসি, দনুজ-তনয়ে করে সভয়।
কভু ব্রজপুরে আসি, বাজাইয়ে বাঁশী, ব্রজাঙ্গনার মন হরিয়ে লয়।।
ত্রিগুণ ধারণ করিয়ে কখন, করয় সৃজন-পালন-লয়।
কভু আপনার মায়ায় আপনি বাঁধা, যতনে এ ভব-যাতনা সয়।।
যে রূপে যে জনা করয়ে ভাবনা, সে রূপে তাঁর মানস রয়।
কমলাকান্তের হৃদি-সরোবরে, কমল-মাঝারে করে উদয়।।

পাঠান্তর

উপরিল্লিখিত পাঠটি ১২৯২ বঙ্গাব্দে প্রকাশিত “কমলাকান্তের পদাবলী” গ্রন্থ থেকে সংকলিত হয় অমরেন্দ্রনাথ রায় সম্পাদিত কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের “শাক্ত পদাবলী (চয়ন)” গ্রন্থের অন্তর্ভুক্ত হয়। শেষোক্ত গ্রন্থে এই গানের অপর একটি পাঠান্তরও সংকলিত হয়েছে। সেটি নিম্নরূপ:


জান না রে মন, পরম কারণ, শ্যামা শুধু মেয়ে নয়।
সে যে মেঘের বরণ করিয়ে ধারণ,
কখন কখন পুরুষ হয়।।
কভু বাঁধে ধড়া, কভু বাঁধে চূড়া,
ময়ূরপুচ্ছ শোভিত তায়।
কখন পার্বতী, কখন শ্রীমতী,
কখন রামের জানকী হয়।।
হয়ে এলোকেশী, করে লয়ে অসি,
দানবচয়ে করে সভয়।
কভু ব্রজপুরে আসি, বাজাইয়ে বাঁশী,
ব্রজবাসীর মন হরিয়ে লয়।।
যে রূপ যে জন, করয়ে ভজন,
সেই রূপ তাঁর মানসে রয়।
কমলাকান্তের হৃদি-সরোবরে,
কমল-মাঝে কমল হয় উদয়।।