শ্রীশ্রীহরি লীলামৃত/আদি খণ্ড/দ্বিতীয় তরঙ্গ/১১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন


বৈরাগীর বংশ রথে বাসুদেবোদয়।
সব লোকে তাহ দেখি মানিল বিস্ময় ॥
 " তাহা দেখি রামকান্ত কেঁদে কেঁদে কয়।
বাসু এল বাশে রথে জগা এলে হয় ॥
দেখরে জগৎবাসী দেখ দাড়াইয়া।
বসুদেব রথযাত্র। দেখ রে চাহিয়৷ ৷
মোর বাস্থ রথে সাজে নব জলধর।
বলিতে বলিতে স্বেদকম্প থর থর ॥
 রথের উপরে উঠি মনের হরিষে।
রামকান্ত বাসুদেবে কোলে করি বসে ॥*
 হেন কালে এল কোলে প্ৰভু জগন্নাথ ।
দুই প্রভু দুই কোলে চলে যায় রথ ॥
কেহ বলে রথের হইল একটান। - -
কেহ বলে কে টানিল চলে রথখান ॥ .
মুহূৰ্ত্তেক চলি রথ হইল স্বস্থির।
ভূমিতে নামিল কান্ত চক্ষে বহে নীর ॥
প্রেমে গদ গদ হ’য়ে রামকান্ত কয় ।
দেখরে নগরবাসী দিন ব’য়ে যায় ॥
দেখ দেখ চেয়ে দেখ যত ভক্তগণ ।
জগা বাসে এক রথে অপূৰ্ব্ব মিলন।
প্রেমাবেশে ধরায় দিতেছে গড়াগড়ি।
কি ধরে টালিব রথ বুথে নাই দড়ি ৷ _
জগ৷ বাসে মিলন দেখিয়া সৰ্ব্বলোক ।
এই ত বৈকুণ্ঠ মম এই ত গোলোক ৷
জগা বাসো দুইজন একত্র মিলন ।
এ মোর মথুর। পুরী এই বৃন্দাবন ॥ --
 জগ বাসে সন্মিলন অপূৰ্ব্ব মাধুরী ।
তারক রসন। ভরি বল হরি হরি ॥

রামকান্ত বৈরাগীর মানবলীলা সম্বরণ।
পয়ার ।

কতদুর দূরে গিয়া রামকান্ত কয় !
টানিতে নারিৰ বুথ তোর চ'লে আtয় ॥
真 বলিতে বলিতে ঘড়ঘড় শব্দ হয় ।
কেহ ন টানিল রথ বেগে চলে যায় ॥
আশ্চৰ্য্য মানিয়া সবে দৃঢ়ভক্তি হ'য়ে।
এক দুষ্ট্রে রথপানে সবে বুৈল চেয়ে ॥
লোক ভিড় নিকটে না সবে যেতে পারে।
কেহ কেহ দুরে থেকে রথ বৃষ্টি করে।
কোন কোন ভাগ্যবান করে দরশন।
জগন্নাথ বাসুদেবের যুগল মিলন ।
ঘড় ঘড় শব্দে রথখান চলে এল R
 রামকান্ত পথ মাঝে বসিয়া রহিল ।
কেহ বলে উঠ উঠ উঠ হে বৈরাগী । -
এখানে বসিলে কেন মরিবার লাগি ।
অষ্টাঙ্গ লোটায়ে সাধু করে দণ্ডবং !
রামকান্ত উপৰে উঠিল গিয়া রথ ৷
পৃষ্ঠোপরে রথখান উঠিল ঘখন ।
উঠে এক জ্যোতি প্রাতঃস্থৰ্য্যের মতন ॥
দেখিয়া সকল লোকে লাগে চমৎকার ।
 রথ নীচ হ’তে যেন উঠে দিবাকর a
 বিদ্যুতের ন্যায় তেজ রথোপরে গেল ।
জগন্নাথ বাসুদেবের অঙ্গেতে মিশিল ॥ ।
পূৰ্ব্ব মুখ রথখান হইল স্বস্থির।
পথে পড়ে রৈল রামকান্তের শরীর ।
সকলে দেখিল গেছে ব্ৰক্ষরত্ব, ফাট ।
 রামকান্তের মৃত দেহে হ’ল পুষ্পবৃষ্টি । ,
 রামকান্ত লীলা সাঙ্গ হরিবল ভাই ।
শ্রবণে গোলোকে বাস কাল ভয় নাই ।
জগন্নাথ রথ হ’তে হ’ল অন্তধর্ণন ।
বাসুদেবে ল’য়ে দ্বিজগণ গৃহে যান ।
ভুবন পবিত্ৰ হেতু রামকান্ত এল ।
এই রামকান্তবরে হরি জনমিল ৷
রামকান্ত ভক্ত সব একত্র হইল ।
ঘুতায়ি সংযুক্ত করি সৎকার করিল ॥
রামকান্ত মহাসাধু রসিক সমাজ । -
কান্তলীল রচিল তারক রসরাজ ।








শাস্ত্রপ্রচার প্রেস,

৫নং ছিদামমুদির লেন , দর্জ্জিপাড়া হইতে

শ্রীকুলচন্দ্র দে দ্বারা মুদ্রিত।