জীবনানন্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা

উইকিসংকলন থেকে
Jump to navigation Jump to search


 

জীবনানন্দ দাশের
শ্রেষ্ঠ কবিতা

 

 

জীবনানন্দ দাশের
শ্রেষ্ঠ কবিতা

 

জীবনানন্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা শিরোনাম চিত্র.tiff

 

নাভানা
৪৭ গণেশচন্দ্র অ্যাভিনিউ, কলকাতা ১৩

প্রকাশক শ্রীসৌরেন্দ্রনাথ বসু
নাভানা
৪৭ গণেশচন্দ্র অ্যাভিনিউ, কলকাতা ১৩
 
প্রচ্ছদচিত্র শ্রীইন্দ্র দুগার কর্তৃক অঙ্কিত

 

প্রথম মুদ্রণ
বৈশাখ ১৩৬১, মে ১৯৫৪
 
দাম: পাঁচ টাকা

 

মুদ্রক শ্রীগোপালচন্দ্র রায়
নাভানা প্রিন্টিং ওয়ার্কস্ লিমিটেড
৪৭ গণেশচন্দ্র অ্যাভিনিউ, কলকাতা ১৩

কবিতা কি এ-জিজ্ঞাসার কোনো আবছা উত্তর দেওয়ার আগে এটুকু অন্তত স্পষ্টভাবে বলতে পারা যায় যে কবিতা অনেক রকম। হোমরও কবিতা লিখেছিলেন, মালার্মে র্যাঁবো ও রিলকেও। শেকস্‌পীয়র বদ্‌লেয়ুর রবীন্দ্রনাথ ও এলিয়টও কবিতা রচনা করে গেছেন। কেউ-কেউ কবিকে সবের ওপরে সংস্কারকের ভূমিকায় দ্যাখেন; কারো-কারো ঝোঁক একান্তই রসের দিকে। কবিতা রসেরই ব্যাপার, কিন্তু এক ধরনের উৎকৃষ্ট চিত্তের বিশেষ সব অভিজ্ঞতা ও চেতনার জিনিস—শুদ্ধ কল্পনা বা একান্ত বুদ্ধির রস নয়।

 বিভিন্ন অভিজ্ঞ পাঠকের বিচার ও রুচির সঙ্গে যুক্ত থাকা দরকার কবির; কবিতার সম্পর্কে পাঠক ও সমালোচকেরা কি ভাবে দায়িত্ব সম্পন্ন করছেন—এবং কি ভাবে তা’ করা উচিত সেই সব চেতনার ওপর কবির ভবিষ্যৎ কাব্য, আমার মনে হয়, আরো স্পষ্টভাবে দাঁড়াবার সুযোগ পেতে পারে। কাব্য চেনবার আস্বাদ করবার ও বিচার করবার নানারকম স্বভাব ও পদ্ধতির বিচিত্র সত্যমিথ্যার পথে আধুনিক কাব্যের আধুনিক সমালোচককে প্রায়ই চলতে দেখা যায়, কিন্তু সেই কাব্যের মোটামুটি সত্যও অনেক সময়ই তাঁকে এড়িয়ে যায়।

 আমার কবিতাকে বা এ-কাব্যের কবিকে নির্জন বা নির্জনতম আখ্যা দেওয়া হয়েছে; কেউ বলেছেন, এ-কবিতা প্রধানত প্রকৃতির বা প্রধানত ইতিহাস ও সমাজ -চেতনার, অন্য মতে নিশ্চেতনার; কারো মীমাংসায় এ-কাব্য একান্তই প্রতীকী; সম্পূর্ণ অবচেতনার; সুররিয়ালিস্ট। আরো নানা-রকম আখ্যা চোখে পড়েছে। প্রায় সবই আংশিকভাবে সত্য—কোনো-কোনো কবিতা বা কাব্যের কোনো-কোনো অধ্যায় সম্বন্ধে খাটে; সমগ্র কাব্যের ব্যাখ্যা হিসেবে নয়। কিন্তু কবিতাসৃষ্টি ও কাব্যপাঠ দুই-ই শেষ পর্যন্ত ব্যক্তি-মনের ব্যাপার; কাজেই পাঠক ও সমালোচকদের উপলব্ধি ও মীমাংসায় এত তারতম্য। একটা সীমারেখা আছে এ-তারতম্যের; সেটা ছাড়িয়ে গেলে বড়ো সমালোচককে অবহিত হ’তে হয়।

 নানা দেশে অনেক দিন থেকেই কাব্যের সংগ্ৰহ বেরুচ্ছে। বাংলায় কবিতার সঞ্চয়ন খুবই কম। নানা শতকের অক্‌স্‌ফোর্ড বুক অব ভর্সের সংকলকদের মধ্যে বড়ো কবি প্রায়ই কেউ নেই; কিন্তু সংকলনগুলো ভালো হয়েছে; ঢের পুরোনো কাব্যের বাছবিচারে বেশি সার্থকতা বেশি সহজ, নতুন কবি ও কবিতার খাঁটি বিচার বেশি কঠিন। অনেক কবির সমাবেশে একটি সংগ্রহ; একজন কবির প্রায় সমস্ত উল্লেখ্য কবিতা নিয়ে আর-এক জাতীয় সংকলন; পশ্চিমে এ-ধরনের অনেক বই আছে; তাদের ভেতর কয়েকটি তাৎপর্যে–এমন কি মাহাত্ম্যে প্রায় অক্ষুণ্ণ। আমাদের দেশে দু-একজন পূর্বজ (উনিশ-বিশ শতকের) কবির নির্বাচিত কাব্যাংশ প্রকাশিত হয়েছিলো; কতো দূর সফল হয়েছে এখনও ঠিক বলতে পারছি না। ভালো কবিতা যাচাই করবার বিশেষ শক্তি সংকলকের থাকলেও আদি নির্বাচন অনেক সময়ই কবির মৃত্যুর পরে খাঁটি সংকলনে গিয়ে দাঁড়াবার স্থযোগ পায়। কিন্তু কোনো-কোনো সংকলনে প্রথম থেকেই যথেষ্ট নির্ভুল চেতনার প্রয়োগ দেখা যায়। পাঠকদের সঙ্গে বিশেষভাবে যোগ-স্থাপনের দিক দিয়ে এ-ধরনের প্রাথমিক সংকলনের মূল্য আমাদের দেশেও লেখক পাঠক ও প্রকাশকদের কাছে ক্রমেই বেশি স্বীকৃত হচ্ছে হয়তো । যিনি কবিতা লেখা ছেড়ে দেননি তাঁর কবিতার এ-রকম সংগ্রহ থেকে পাঠক ও সমালোচক এ-কাব্যের যথেষ্ট সংগত পরিচয় পেতে পারেন; যদিও শেষ পরিচয় লাভ সমসাময়িকদের পক্ষে নানা কারণেই দুঃসাধ্য।

 এই সংকলনের কবিতাগুলো শ্ৰীযুক্ত বিরাম মুখোপাধ্যায় আমার পাঁচখানা কবিতার বই ও অন্যান্য প্রকাশিত ও অপ্রকাশিত রচনা থেকে সঞ্চয় করেছেন, তাঁর নির্বাচনে বিশেষ শুদ্ধতার পরিচয় পেয়েছি। বিন্যাসসাধনে মোটামুটিভাবে রচনার কালক্ৰম অনুসরণ করা হয়েছে।

কলকাতা
২০. ৪. ১৯৫৪

 
জীবনানন্দ দাশ
 

ঝরা পালক

নীলিমা ১১
পিরামিড ১২
সেদিন এ-ধরণীর ১৪


ধূসর পাণ্ডুলিপি

মৃত্যুর আগে ১৭
বোধ ১৯
নির্জন স্বাক্ষর ২৩
অবসরের গান ২৫
ক্যাম্পে ৩১
মাঠের গল্প ৩৪
সহজ ৩৯
পাখিরা ৪১
শকুন ৪৩
স্বপ্নের হাতে ৪৪


বনলতা সেন

ধান কাটা হ’য়ে গেছে ৪৬
পথ হাঁটা ৪৭
বনলতা সেন ৪৮
আমাকে তুমি ৪৯
তুমি ৫০
অন্ধকার ৫১
সুরঞ্জনা ৫৩
সবিতা ৫৪
সুচেতনা ৫৫


* আবহমান ৫৬
* ভিখিরী ৬০
* তোমাকে ৬১


মহাপৃথিবী

হাজার বছর শুধু খেলা করে ৬২
শব ৬২
হায় চিল ৬৩

সিন্ধুসারস ৬৩
কুড়ি বছর পরে ৬৫
ঘাস ৬৬
হাওয়ার রাত ৬৭
বুনো হাঁস ৬৯
শঙ্খমালা ৬৯
বিড়াল ৭০
শিকার ৭১
নগ্ন নির্জন হাত ৭২
আট বছর আগের একদিন ৭৪


* মনোকণিকা ৭৭
* সুবিনয় মুস্তফী ৮০
* অনুপম ত্রিবেদী ৮০


সাতটি তারার তিমির

আকাশলীনা ৮২
ঘোড়া ৮৩
সমারূঢ় ৮৩
নিরঙ্কুশ ৮৪
গোধূলি সন্ধির নৃত্য ৮৫
একটি কবিতা ৮৬
নাবিক ৮৮
খেতে প্রান্তরে ৮৯
রাত্রি ৯১
লঘু মুহূর্ত ৯২
নাবিকী ৯৪
উত্তরপ্রবেশ ৯৬
সৃষ্টির তীরে ৯৮
তিমির হননের গান ১০০
জুহু ১০১
সময়ের কাছে ১০২
জনান্তিকে ১০৫
সূর্যতামসী ১০৭
বিভিন্ন কোরাস ১০৮

 

* তবু ১১২
* পৃথিবীতে ১১৪
* এই সব দিনরাত্রি ১১৫
* লোকেন বোসের জর্নাল ১১৯
* ১৯৪৬-৪৭ ১২১
* মানুষের মৃত্যু হ’লে ১২৬
* * অনন্দা ১২৯
* আছে ১৩২
* যাত্রী ১৩৩
* * স্থান থেকে ১৩৪
* * দিনরাত ১৩৫
* * পৃথিবীতে এই ১৩৫
 

* চিহ্নিত কবিতাগুলি ইতিপূর্বে কোনো গ্রন্থের অন্তর্ভূত হয়নি। * * চিহ্নিত কবিতাগুলি ইতিপূর্বে কোনো গ্রন্থে কিংবা সাময়িকপত্রে প্রকাশিত হয়নি।

 

এই লেখাটি বর্তমানে পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত কারণ এটির উৎসস্থল ভারত এবং ভারতীয় কপিরাইট আইন, ১৯৫৭ অনুসারে এর কপিরাইট মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে। লেখকের মৃত্যুর ৬০ বছর পর (স্বনামে ও জীবদ্দশায় প্রকাশিত) বা প্রথম প্রকাশের ৬০ বছর পর (বেনামে বা ছদ্মনামে এবং মরণোত্তর প্রকাশিত) পঞ্জিকাবর্ষের সূচনা থেকে তাঁর সকল রচনার কপিরাইটের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যায়। অর্থাৎ ২০১৮ সালে, ১ জানুয়ারি ১৯৫৮ সালের পূর্বে প্রকাশিত (বা পূর্বে মৃত লেখকের) সকল রচনা পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত হবে।