পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/১৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অমরনাথ । >●● নটা বাজল তারই একটুকু আগেতেই বৈটকখানার ধৰ্ম্মঘড়ীতে নট বাজল, আমরা শুনৃলেম। ওমা কেন ঐ ষে এখনও টাক টিক টাক টিক কোরে চেলিছে যে । বন হবে কেন ? অমর। অ্যা ? বটেও তো ! আমার ওটা আদৌ বোধ হয় নি—খেন এই রাত্রের সব কীট পতঙ্গের শব্দের সঙ্গে মিশে ছিল। তা চল চল চল । , [ জয়ার মার স্কন্ধে অমরনাথ হস্তাপণ করতঃ উভয়ের প্রস্থান ।

ষষ্ঠ গর্ভাঙ্ক। অমরনাথ মিত্রের বাসগৃহ । ( কমলবাসিনী, অমরনাথ এবং জয়ার মা ) জয়। এই এয়েচেন । যুমুচ্ছিলেন। বৈটকখানার দরজাগুলি সব বন্দ ন কোরে,আর ঘুমুচ্ছেন। এই স্কুমেত্ববে আহাঃ, কত কিক্তি কত কারখানা। এই নিশি আত্তিরে আমবা এক ঘুমের পরে উঠে-ত্যাখন দুচৌকি ইেকে গ্যাচে—আর ত্যাখন দেখি না ছেলে ত্যাখন অবদি বোসে পোড়তে নেগেচে, এই ঠাকরুণ উঠে আমাকে বলে, বলে ও জয়ার মা ! ও জয়ার মা !—আহা! স্বগৃগের মানুষ স্বগৃগে গেল আমরাই রইনু ঘুটে কুডুতে !— (অশ্রুপাত এবং অঞ্চলে মোচন ) কি বোলুতেছ্যানু ভুলে গেনু-ইঁ, বলে ও জয়ার মা, ও জয়ার মা ! ছেলে যে আত জেগে থুন হল, তুই জেতি গে ওর কোলে থেকে বইখান তুলে নিয়ে পদিমূটে নিবিয়ে দিস। আমি বোলতুন আমি পার্বনি ঠাকুরুণ। তোমার ছেলে তুমি পাল্লেনি এখন জয়ার মা যাও । আমার তো পোড়া দোশা, আমি এই