পাতা:অসমীয়া সাহিত্য.pdf/২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অসমীয়া সাহিত্যের শৈশব ও কৈশোর సిసి কিন্তু কন্যাও চতুরা, সেও চোর ধরিবার আয়োজন করিয়াছে— আজি রাতি চোর মই থাকে লাগল পাঁও হাতে গলে বান্ধে তাকে রাজঘরে পথাঁও চারি কালে রাখি থম প্রহর চারিটি দয়ার মুখত বান্ধি থম মত্ত গজহাতি শিথানে পৈথানে লগাম ঘতর পাঞ্চ বাতি তীক্ষ খান্ডা হাতে ধরি জাগিম চৌপর রাতি। उाछा पाह्म হাসি খেলি বিদায় দিয়া যাঁও নিজদেশ তুমি হলা ভিন পরিষে আমি ভিন নারী বাপর শকতি নাই বিদায় দিতে পারি। কিন্তু ধমজান, নীতিজ্ঞান শেষ পর্যন্ত প্রবল ধরমক চিন্তি তুমি যোবা বাজপথে কবি কিন্তু শেষপর্যন্ত সমস্যা অনারকমে মিটাইয়া ফেলিলেন। তার মস্তিক ও হৃদয় অন্তদ্বন্দ্বের শেষ হইল—এই পরপরষ, পরপর্ষ নয়, শিশুকালে বিবাহিত তাহারই পতি পরপর্য নোহোঁ কন্যা তোর টিকর পতি । কে সে শিশুকালত বিয়া করাইছো মাণিক সদাগর নানা আড়ম্বরে আসিছিলো তোমার ঘর তখন প্রদীপ হাতে কনা নদীর ঘাটে চলিল, বারো মাস শেষ হইয়া গিয়াছে, মিলনের শেষ পব । এই যুগের গাবলগীযাঁ গীতের নমনা এইরপ—ফলকেঙির গাঁত— মনেকৈ উজালে চিতেকৈ ভটিয়াই দুখরে বাতরি কথা কিনো কৈয়ে থাম কিনো শুনি যাবি মনতে লাগিবে বেথা কিন্তু এই যে ফুলকুমার যার দুঃখের কথা বলা হইতেছে যাহাতে মনে ব্যথা লাগে, তিনি পক্ষীরাজ ঘোড়ায় চড়িয়া চলিলেন কাঠর পখী ঘোঁড়া পাই ফল কোঙর বিজুলী সঞ্চারে চলে পক্ষীরাজের কৃপায় এক মালিনীর মালচে ফুলকুমার উদয় হইলেন, সেখানে সোঁউতি, মালতী, টগর গুটিমালী কোনো ফলের অপ্রতুল নাই— ফলকে গাঁথিলে ফলতে লিখিলে ফলতে বাতরি দিলে।