পাতা:আমার বাল্যকথা ও আমার বোম্বাই প্রবাস.pdf/৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আমব বাল্যকথা & 3 বিলাতে থাকতে আমাদের পত্র ব্যবহারে কোনদিন ক্রটি হয়নি। যখন আমি বোম্বায়ে BB BBB BB BBBB BBB BBSB BBBS BB BBB BBSBSBB BBB থেকে ফিবে আসার বছব দুই পৰে –১৮৬৭ খৃষ্টাব্দে । ব্যারিষ্টাব হয়ে দেশে ফিরে আসতে আসতেই প্রায় তিনি ব্যারিষ্টারীতে প্রতিপত্তি লাভ করেন। আমি যখন বিদেশে কৰ্ম্মস্থলে তখন তিনি এখানে থেকে আমাদের বিষয়-কৰ্ম্ম সংক্রান্ত সকল বিষয়ে পরামর্শদাতা ও সৰ্ব্বতোভাবে হিতচিন্তক ছিলেন । আমাদের পরিবারের সবাইকে আপনার মত কবেই দেখতেন। তঁর ভালবাসার চিহ্নসকল আমার জীবনময় ছড়ানো রয়েছে অব তার কাছ থেকে সময়ে অসময়ে যে সকল উপকার পেয়েছি তবে জন্য আমি তার নিকটে চিবঞ্চণী । আমার জীবনেব উপব দিয়ে কতশত ঘটনা গিয়েছে, অবস্থার কত পরিবর্তন হয়েছে, কত লোকের সঙ্গে আলাপ পরিচয় বন্ধুতা হয়েছে র্যাদের নাম স্মৃতি মাত্রই রয়ে গিয়েছে কিন্তু এই সে বন্ধুতার কথা বলছি এ এখনো পৰ্য্যন্ত অক্ষুঃ রয়েছে । আমি সব কথাগুলি এই লিখছি আমার সেই প্রিয়সুহৃৎ এ সময়ে রোগশয্যায় শয়ান । ৫, ৬ বৎসর ধরে তিনি উৎকট পীড়ার কষ্ট পাচ্ছেন কিন্তু পড়ার যন্ত্রণায় তার স্বাভাবিক শক্তি কখনো স্নান হ’তে দেখিনি। কোন দিন একটু ভাল কোন দিন মন্দ, এই উত্থানপতনের মধ্যে তিনি ধীরভাবে দিনযাপন করছেন। এই দুঃখ কষ্ট্রে তার ধৈর্য্য অসীম, তার বীর্য্য ও সাহসের হ্রাস নাই। র্তার কি রোগ, চিকিৎসায় কি কি প্রয়োজন, তিনি এ সকলি তন্ন তন্ন করে জেনেছেন আর ডাক্তারের ঔষধ পথ্য যা কিছু ব্যবস্থা কবেন, যাতে তাব তিলমাত্র ব্যতিক্রম না হয় তিনি নিজেই তার তত্ত্বাবধান করেন । বলতে গেলে তিনি আপনিই আপনার চিকিৎসক, আপনিই আপনাব ধাত্রী। অামাব একজন ইংলণ্ড প্রবাসী বন্ধু এদেশে এসে তার এই অবস্থা দেখে বলছিলেন, “তাবক যেন যমের সঙ্গে যুদ্ধ কবছেন",— সত্যই করছেন—যমের সঙ্গে যুদ্ধ করেই তিনি এতদিন পর্য্যন্ত জীবিত রয়েছেন। ডাক্তার Lukis বলতেন, “পালিত কেবল তার Will-power-এর জোরে বেঁচে আছেন—আমাদের ডাক্তারি শাস্ত্রের সবই যেন উলটে দিয়েছেন।” মৃত্যু আসুক তাতে তার কোন ভয় নাই, কেবল ভয় এই যে, যে মহৎকাৰ্য্য সমাধা করতে তিনি উৎসুক, পাছে মৃত্যুতে সে কাজের কোন ব্যাঘাত হয়। তিনি তার স্বোপাজ্জিত প্রভূত ঐশ্বৰ্য্য দেশের কল্যাণত্রতে উৎসর্গ করেছেন, তা কারে অবিদিত নাই। আমাদের দেশে যাতে বিজ্ঞান-শিক্ষার প্রচাব হয়, বিজ্ঞান-বলে যাতে কৃষিশিল্পের উন্নতি এবং ঐ সঙ্গে দেশীয় লোকের অর্থে পার্জনের সহস্র দ্বার উন্মুক্ত