পাতা:আর্য্য-নারী দ্বিতীয় ভাগ.djvu/৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

台8 আর্য্য-নারী । আমার প্রাণের ধন চন্দনকে দেখিতেছি । আজ রাণার বংশ রক্ষার জন্য, চিতোর-গৌরবের অগ্নিস্ফুলিঙ্গ রক্ষার জন্য,- চন্দনকে আমি বিসৰ্জন দিব । বারি। সে কি ! - , পান্না । হঁ। — উদয়ের কাপড় পরাইয়া এখনি চন্দনকে বিছানায় রাখিব, বনবীর আসিলে উহাকেই উদয় বলিয় দেখাইয়া দিব । বারি চমকিত হইয়া কহিল,—“ধাইমা, ধাইমা, তুমি রাক্ষসী না মানবী ?” পান্না কম্পিত কণ্ঠে কহিলেন,-“রাক্ষসী, বারি, আজ আমি রাক্ষসী ! জননী হইয়া তাই চন্দনকে মৃত্যুমুখে সঁপিয়া দিতেছি।” কিন্তু তখনই আত্মসম্বরণ করিয়া ধীর দৃঢ়কণ্ঠে পান্না আবার কহিলেন,-“বারি, যে রাণাবংশ এতকাল মিবারের গৌরব রক্ষা করিয়া আসিতেছেন, যে রাণাবংশ ভবিষ্যতে মিবারের গৌবর আরও বাড়াইবেন, যে রাণবংশের নামে জন্মস্থান। ধন্য, ভারত ধন্য, জগত ধন্য হইয়াছে—আরও হুইবে, আমি কে, বারি, যে, সেই রাণাবংশ রক্ষার জন্য আমার পুত্রকে মৃত্যুর হাতে সপিয়া দিতে পারিব না ? আজ রাণা বংশধর উদয়ের কাছে আমার পুত্র কে, যে, সে তার জীবন রক্ষার জন্য প্রাণ দিবে না ? বারি, আমি রাজপুতরমণী ; আমার পুত্র রাজপুত । রাণার সহচররূপে রাণার জীবন রক্ষার্থ যুদ্ধে প্রাণদান তার