পাতা:ইন্দুমতী - যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৯
দ্বিতীয় সর্গ।

বদন, হৃদয়, কণ্ঠ, কভু কেশ ভার,
কভু বা যতনে হাত বুলান শরীরে
চিবুক ধরিয়া স্নেহে নাড়ি বারবার।
কি যেন উচ্ছ্বাসে কিবা ভরিল হৃদয়,
ভিজিল নয়ন তাঁর স্নেহ-অশ্রুজলে,
কাঁপিয়া কাঁপিয়া অশ্রু নেত্ৰ যুগ হতে,
কপোল বহিয়া ধীরে লাগিল ঝরিতে।
বিহবলা রাণীমা এবে। কে জানে সুন্দরী
ছিল কিনা কোন দূর সুদূর অতীতে,
আত্মীয়া তাঁহার বড় আদরের ধন?
কে জানে অলক্ষ্য কোন অচ্ছেদ্য বন্ধনে,
বঁধা কিনা দুই জনে জীবনে মরণে?
কর্ম্ম ফলে আজ তাই বহু জন্ম পরে,
উভয়ে মিলিতা তাঁরা হলেন আবার?
গভীর রহস্য কিবা! কাহাকে দেখিয়া,
কখন উথলি উঠে প্ৰেম পারাবার,
অপোর আনন্দ মনে, কাহাকে দেখিয়া,
বিষাদে বিরাগে ভরে কাহার অন্তর।
কেন হয় কেবা জানে? অতীত জীবনে
কি ছিল কাহার সনে কে বলিতে পারে?
 বিহবলা রাণী মা এবে লইয়া সুন্দরী,
কপোল বহিয়া পড়ে তপ্ত অশ্রদ্ধার।