পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/১৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


wobo কবিতাসংগ্ৰন্থ । দে। তার কি প্রকার, প্রণয়ের ধারা । অনায়াসে অনলে, পুড়িয়া হয় সারা ॥ লাফ মেরে ঝাপ দিয়া, প্রাণ দেয় মুখে । একরার আহা, উহু, করেনাকে মুখে ॥ সহজে কি প্রেম কোরে তারে পারি বোকা । চিরকাল এক ভাব, বুড়া হোয়ে খোকা । জ্ঞানাগুণে রাপ দেরে, দুরে যাক ধোকা । এখনি পুড়িয়া মর, হোয়ে প্রেম-পোকা । ঘরে ঘরে ফের যদি, ঘরছাড়া হোয়ে। ঘর ছেড়ে কিবা কাজ, থাক ঘর লোয়ে ॥ পেট নিয়া, দ্বারে দ্বারে, যদি গুণ হাপু । এমন সন্ন্যাসে তোর, ফুল কিরে বাপু ? রর ছেড়ে, ঘরে ঘরে, না ফিরিতে হয় । তবে রাপু, ঘর ছাড়া, অনুচিত নয় ॥ বোসে থাকো এক ঠাই, নীরব হইয়া । চেচাওনা কারো কাছে, পেটে হাত দিয়া | কদিন বাচিবে আর, রুদিন রাচিবে ? এ ভাবে কদিন আর, জীবন যাপিবে ? কদিন ধরিবে আর, দেহের এ বল ? রুদিন চলিবে আর, দেহের এ কল ?