পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/১৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিতাসংগ্রহ । * は টেয়ে দেখ সংসারেতে, কতগুলি ছেলে ? বল দেখি কি হইবে, নয় রেখ চেলে ? ক্ষুদকুড়া গুড়া করি, কুটিলাম টেকি । কেমনে চালাই লব, তুমি হোলে টেকি । আড় করি পার দিতে, সিকি গেল গড়ে । লেখা করি নাছি হয়, আদ্‌ পোয় গড়ে ॥ ছাই কোরে রাখিলাম, অৰ্দ্ধভাগ কেটে । হাতে হাতে গেল তিল, তিল তিল বেটে ॥ ঝোলাগুড় তোলা ছিল, শিকের উপরে । তোলা তোলা খেতে দিয়া ফুরাইল ঘরে । পোয় কাচ্চা কি করিবে, নহে এক মন । বাড়ীর লোকের তাহে, নহে এক মণ ॥৭ একমনে থtয় যদি, অtদ মণে সারি । একমনে না খাইলুে, দশ মণে হারি ॥ ভাঙ্গামণে পুরোমণ, মন যদি খোলে । পূরোমণে কি হইবে, ভাঙ্গামন হোলে । তুমি ভাব ঘরে আছে, কত মণ তোলা । জাননা কি ঘরে আছে, কত মন তোলা ? কারে বা কহিব আর, বোঝা হলো দায় । খুলে দিলে, মন কিহে, তুলে রাখা যায় ? বিষম তুরন্ত ওটা, মেজোবোর ব্যাট । কোনমভে শুনেনাকে, ছোড়া বড় ঠাট ।