পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/২৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিতাসংগ্রহ । বহু দিবসের পর, মত্ত হোরে মধুকর, মধুপান করে দুই করে ॥ " শত শত দলে দলে, ৱসে শতদলদলে, রসে শতদল দলে সুখে । মনোহর সরোবরে, পুলকে ঝঙ্কার করে, কিবা গুণ গুন গুন মুখে ॥ নাহি পৃথিবীর পঙ্ক, * শুষ্ক পথ নিষ্কলঙ্ক, নিরাতঙ্ক যোদ্ধাগণ সাজে । পথিকের পথ ক্লেশ, দূরে গেল সবিশেষ, পরস্তু বিচ্ছেদ মনোমাঝে { ছয় ঋতু মধ্যে ধন্য, সকলের অগ্রগণ্য, শরদের জয় সবে বলে । যtহাতে যোগীন্দ্র যায়, মহেশ্বরী মহামায়া, আৰিভূত অবনী মগুলে ! মৃন্ময়ী মহেশ-প্রিয়া, যথা শক্তি পূজা দিয়া, তরে লোক ইহ-পরকাল । তাহাতে যে মহোৎসব, বলিতে অক্ষম সব, পঞ্চানন তবু মহাকাল । আছেন অনেক ঋতু, মন উদাসের হেতু, পুণ্যসেতু বন্ধে কোন ঋতু। দুর্গ দরশন অর্থে, শরদে আসেন মর্ত্যে, মুরগণ সহ শতক্রতু ॥ ১৭৯