পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/৩০৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিতাসংগ্ৰহ । ≤ኔዓ সিংহাসন প্রাপ্ত ছোয়ে, ঋতুপতি শীত । রাণী সঙ্গে রসরঙ্গে, ছিল হরষিত । লবিশেষ নাহি জানে, কোন সমাচার । পাত্র মিত্র সেনাগণ, সেরূপ প্রকার। হঠাৎ বসন্ত আসি, হইয়া প্রকাশ । একেবারে সমুদয়, করিল বিনাশ ॥ ন। রহিল কোন চিকু, সর গেল উঠে । উত্তরে বাতাস ভয়ে, পলাইল ছুটে ॥ কোথায় রহিল হিম, দেখা নাহি আমার । বসন্ত প্রভাবে মার, করে মার মার। মলয়া পবন দিলে, অতিশয় হেঁকে । সিংহাসনে ঋতুরাজ, বসিলেন জেকে ॥ বিরহী শাসন হেতু, লোয়ে খাড়া ঢাল । কুহু রবে ডাক ছাড়ুে, কোকিল কোটাল লাম মাত্র মাঘ মাস, ঘোর শীতকাল । বড় বড় শাল হল, বড় বড় সাল ॥ সকলের মহানন্দ, বসন্তের বলে । অধিকন্তু হাফ দুঃর্থী, ইয়ারের দলে । উড়ানি উড়ায়ে গায়, দমে দম ছাড়ি । ছুড়ি মেরে যায় সবে, ইয়ারের বাড়ী ॥ শীত ঋতু মহাশয়, রাজ্যহীন হোয়ে। মনে মনে ভাবে বসে, অভিমান লোয়ে >న