পাতা:উৎসর্গ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।


‘আমি  বিপুল কিরণে ভূবন করি যে আলাে,
তবু শিশিরটুকুরে ধরা দিতে পারি,
বাসিতে পারি যে ভালাে।’
শিশিরের বুকে আসিয়া।
কহিল তপন হাসিয়া,
‘ছােটা হয়ে আমি রহিব তােমারে ভরি,
তােমার ক্ষুদ্র জীবন গড়িব
হাসির মতন করি।’


১৩

আজ মনে হয়, সকলেরি মাঝে
তােমারেই ভালােবেসেছি।
জনতা বাহিয়া চিরদিন ধ’রে
শুধু তুমি আমি এসেছি।
দেখি চারি দিক -পানে।
কী যে জেগে ওঠে প্রাণে!
তােমার আমার অসীম মিলন
যেন গাে সকলখানে।
কত যুগ এই আকাশে যাপিনু
সে কথা অনেক ভুলেছি।
তারায় তারায় যে আলাে কাঁপিছে
সে আলােকে দোঁহে দুলেছি।

২৭