পাতা:এলিজিবেথ.pdf/১৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

এলিজিবেথ । * ७ १ সকল অবস্থিত রহিয়াছে। অট্রলিকাগুলি নানা প্রকার চিত্রদ্বারা সুশোভিত বটে, কিন্তু তাছার মধ্যে ভঙ্গা চোর কামরাই অধিক। কোন ঘরের কবাট ভাঙ্গণ, কাহারে বা তাছাও নাই, কাহার জানেল। খানিকট অাছে খানিক নাই, কোনটার ছাদ দিয়া জল পড়ে, কতকগুলার ভিতরে বাতাসের জন্যে থাক ভর। কোন কোনটার ব৷ এমনি ভাব যে কখন কাহার ঘাড়ে ভাঙ্গিয় পড়ে। পথমাত্রই অতি অপ্রশস্ত। জনতার জন্য পা বাড়ান ভার। এলিজিবেথকে সে রূপ পথ দিয়া গমন করিবার সময়ে অনেক কষ্ট পাইতে হইল। দুই এক পা অগ্রসর হইতে না হইতেই ভিড় আসিয়া পড়ে, সুতরাং আর যাইতে পারেন না। এই রূপে খানিক ক্ষণ চলিয়া একখানি ক্ষেত্র তাহার দৃষ্টিপথে পতিত হইল। এবং দেখিবামাত্র বোধ করিলেন যে, তিমি পুনৰ্ব্বার আর কোন গ্রাম্য স্থানে আসিয়া উপস্থিত হইলেন। মনে মনে এই প্রকার বোধ হওয়াতে তিনি নিকটস্থ রাজপথের উপরি বিশ্রাম করিতে বসিলেন। এবং দেখিলেন, কতকগুলি লোক ভাল ভাল পোশাক পরিচ্ছদ পরিয়া পরস্পর অধিরাজের অভিষেকের কথাবাৰ্ত্ত করিতে করিতে গমন করিতেছে । আগে এবং পাছে নাম। প্রকার দ্রব্য সামগ্ৰী সকল যাইতেছে। এবং গমন কালে ঐ দ্রব্য সকল পরস্পর লাগালগি হইয়। ঝন ঝন্‌ ঠন্‌ ঠন্‌ শব্দ হইতেছে। প্রধান ধৰ্ম্মশালায় অনবরতই ঘন্টাধ্বনি হইতেছে। ছোট ছোট গীর্জার ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ঘন্ট। সকল সেই ধ্বনিকে আরো পুষ্ট করিয়৷ তুলিতেছে। দুর্গমধ্যে রীতিমত উৎসবের কামানধ্বনি হইতেছে। এই রূপ শহরের চতু-দিকই ধুমধামময় হইয়। উঠিতেছে। • , অনস্তর এলিজিবেথ তথাহইতে উঠিয়। রাজুধানীর প্রাশিক্ষ-প্রসাদ ক্রিমিলাইনের নিকট যাইয়া দেখিলেন যে,