পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/৪৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 R 呜 डिझांगिक श्र्द्धि । কালক্রমে এই সকল মহালের শাসন ভার কিরূপে পরিবর্তিত ও হস্তান্তরিত হইয়াছে তাহু মল্লিখিত “ময়মনসিংহের বিবরণী” গ্রন্থে বিশেষ ভাবে আলোफ्रिङ झंश्लेद्माCछ । ** ১৬০৮ খৃষ্টাব্দে সম্রাট জাহাঙ্গীরের রাজত্ব সময়ে ঢাকা নগরীতে বঙ্গের রাজধানী স্থাপিত হয়। রাজধানী নিকটবর্তী হওয়ায় এতদ প্রদেশকেও রাজধানীর ন্যায় শত্রুর আক্রমণ সহা করিতে হইয়াছিল। ১৬১০ খৃষ্টাব্দে পর্তুগীজ ও আরাকানের এক যোগে দক্ষিণ দিক হইতে আক্রমণ করে । এবং তাহিয়া পদ্মানদীর মোহনাস্থিত দ্বীপ সমূহ এবং বেলুহা (১) ও লক্ষ্মীপুর অধিকার করিয়া লয়। এই আক্রমণে সরকার বাজুহার সােয়র জলকর মহাল ও সোণা বাজুর বহু ক্ষতি হইয়াছিল। ১৬৩৮ খৃষ্টাব্দে উত্তর দিক হইতে আসামরাজ পূর্ববঙ্গ আক্ৰমণ করেন । আসামরাজ বাঙ্গালা জয় করিতে পাঁচ শত যুদ্ধ যান সহ ব্ৰহ্মপুত্র বাহিয়া ঢাকায় আগমন করিয়াছিলেন । আসামের সীমা হইতে ব্ৰহ্মপুত্র তীরস্থ প্ৰত্যেক গ্রাম ও নগর তাহার বিপুল অত্যাচার ও লুণ্ঠনে সৰ্ব্বস্বাস্ত হইয়াছিল। কথিত আছে এই আক্রমণে সরকার বাজুহায় ব্ৰহ্মপুত্র তীরস্থ গ্রাম ও নগরগুলি জনশূন্য ও ভস্মরাশিতে পরিণত হইয়াছিল। এগার সিন্ধুর বঁাকে মুসলমান সৈন্য আসামিরাজের গতিরোধ করিলে সে স্থানে এক ভীষণ যুদ্ধ সংঘটিত হয়। আসামরাজ যুদ্ধে পরাজিত হইয়া প্ৰস্থান করেন। ইসলাম খা আসামরাজের পশ্চাদ্ধাবিত হইয়া আসামের বহু দুর্গ হস্তগত করেন ও বহু লুণ্ঠন সামগ্ৰী লইয়া ঢাকায় প্রত্যাগমন করেন । ১৪ এর পর সাহসুজা বাঙ্গলার শাসনকৰ্ত্তা নিযুক্ত

  • ময়মনসিংহের বিবরণ ১৩-৪১ পৃষ্ঠা দ্রষ্টব্য।

(১) বেলুহা পরবত্তী বন্দোবস্তে ও ইংরাজ শাসন প্রারন্তে ময়মনসিংহের অন্তভুক্ত ছিল।

  • The Raja of Assam embarked five hundred boats cn the Brahmar putra and came down like a torrent over Bengal plundering every town and village in his way. The Sabeder went out to meet him with his war-boats, armed with cannon. The Assamese could not withstand him.