পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/৫৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


eve ঐতিহাসিক চিত্র। আমরা পূর্বে উল্লেখ করিয়াছি যে, মহারাষ্ট্ৰীয় ও আফগানদিগের সহিত যুদ্ধে নবাবের অনেক অর্থ ব্যয় হইয়া যায়, এবং জগৎশেঠ তাহার যথেষ্ট সাহায্য করিয়াছিলেন। কিন্তু উত্তরোত্তর অর্থ ব্যয় হওয়ায় নবাব অর্থসংগ্রহের উপায় নিৰ্দ্ধারণে প্ৰবৃত্ত হন। তিনি জগৎশেঠের সঙ্গে পরামর্শ করিয়া স্থির করেন যে, জমীদারদিগের প্রতি কোনরূপ আবওয়াব বা অতিরিক্ত করা স্থাপন না. করিলে যুদ্ধের ব্যয় নিৰ্বাহ করা কঠিন হইবে। অনন্তর তাহাই নির্দিষ্ট হয়। সেই সময়ে অন্যান্য সুবায় মহারাষ্ট্রীয়দিগকে চৌথ প্ৰদান করিবার জন্য অতিরিক্ত করা আদায় হইত। নবাব জমীদারদিগকে তাহা বুঝাইয়া দিয়া তাহাদের উপর চৌথ স্থাপন করেন। যদিও গঙ্গার পশ্চিম তীরস্থ জমীদারগণ মহারাষ্ট্রীয়দিগের উপদ্রবে। সম্পত্তিহীন হইয়া পড়িয়াছিলেন, তথাপি তাহদের হস্ত হইতে রক্ষা পাওয়ার জন্য নবাবের সেনারক্ষার ব্যয় নির্বাহ করিতে র্তাহারা কিছুমাত্র আপত্তি করেন নাই। গঙ্গার পূৰ্ব্বতীরস্থ জমীদারগণের রাজ্যে মহারাষ্ট্রীয়দিগের কোনরূপ উপদ্রব হয় নাই। অথচ তীাহারাও তাহাদিগের জন্য সর্বদা শঙ্কিত ছিলেন। তাহারাও বৰ্গীদিগকে বিতাড়িত করিবার জন্য নবাবের সৈন্যরক্ষার প্রয়োজন মনে করিয়াছিলেন। সুতরাং উক্ত চৌথ প্ৰদান করিতে বাঙ্গলায় কোন জমীদারই আপত্তি করেন নাই। নবাব জমীদারদিগের নিকটু হইতে ১৫ লক্ষের উপর চৌথ আদায় করিতে আরম্ভ করেন। চৌথ আদায় করিয়া তাহার বিশেষরূপ ফল লাভ হয় নাই, কারণ, পরে উড়িষ্যা তাহার হস্তচু্যুত হয়। তদ্ব্যতীত নিজামত কেল্লার সংস্কার ও সিরাজদ্দৌলার মনসুর "গঞ্জের প্রাসাদ রক্ষার জন্য ও আহুক ও নজরানা মনসুরগঞ্জ নামেও দুইটি । আবওয়াব বা অতিরিক্ত করা স্থাপন হইয়াছিল। নবাব আলিবর্দী খার প্রতি إع প্রগাঢ় শ্রদ্ধা থাকায় জমীদারেরা তাহাতেও কোনরূপ আপত্তি করে নাই এইরূপে নবাব আলিবর্দী খাঁ শূন্য রাজকোষ পূরণের কিঞ্চিৎ উপায় করিয়াছিলেন । নবাবের অর্থনাশের উপায় হইলে, জগৎশেঠ অনেক, পরিমাণে অব্যাহতি । লাভ করেন । যদিও তাঁহার অপরিমিত অর্থ থাকায় তিনি নবাবকে অর্থ