পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sbሦ ঐতিহাসিক চিত্ৰ । নাগরবাসী শ্বেতাম্বর জৈনদিগের মধ্যে হীরানন্দ নামে একজন সামান্য গৃহস্থ ছিলেন। মারবারিগণ চিরদিন হইতে ব্যবসায়বাণিজ্যে আপনাদিগের শ্ৰীবৃদ্ধি সম্পাদনা করিয়া আসিতেছেন, তঁহাদের মধ্যে জৈনগণই উক্ত কাৰ্য্যে সবিশেষ পটু। ভারতবর্ষের এমন কোন নগর নাই, যেখানে অন্ততঃ দুই চারি জন মারবারী ব্যবসায়ের জন্য বাস না করিতেছেন। কলিকাতা, মুর্শিদাবাদ প্ৰভৃতি স্থান র্তাহাদিগের এক একটি উপনিবেশ বলিলেও অত্যুক্তি হয় না। কলিকাতার বড়বাজার ও মুর্শিদাবাদের আজিমগঞ্জ, বালুচর প্রভৃতি স্থান এই সমস্ত মারবারী বণিকৃসম্প্রদায়ের প্রধান স্থান। মুর্শিদাবাদবাসী মারবারিগণের মধ্যে অধিকাংশই জৈন বণিক, কলিকাতায় অনেক হিন্দু মারবারীও আছেন। ঐ সকল স্থান বাণিজ্যলক্ষ্মীর প্ৰিয় বাসনিকেতন হওয়ায় তথায় প্ৰতিনিয়ত উন্নতির স্রোত প্ৰবাহিত হইতেছে। দুঃখের বিষয় মুর্শিদাবাদের জৈন বণিকসম্প্রদায় কিঞ্চিৎ শ্ৰীহীন হইয়া পড়িয়াছে। এই সমস্ত মারবারী বণিকগণ কেবল ভারতবর্ষে আবদ্ধ না থাকিয়া বিশাল সাগর অতিক্রম পূর্বক জাঞ্জিবার, নোটাল প্রভৃতি আফ্রিকার উপকূলসমূহেও বাণিজ্যার্থে অবস্থিতি করিতেছেন। তঁহাদের এই রূপ সমুদ্রযাত্ৰা নিতান্ত আধুনিক নহে, বহু দিন হইতে র্তাহাদিগের মধ্যে উক্ত প্ৰথা প্রচলিত রহিয়াছে। হীরানন্দ সেই জাতির মধ্যে জন্ম পরিগ্রহ করায় নিতান্ত সম্বলহীন হইলেও তঁাহার বাণিজ্যপিপাসা বলবতী হইয়া উঠিল। তিনি ব্যবসািয়কাৰ্য্যে উন্নতি লাভ করিবার ইচ্ছায় আপনার যৎকিঞ্চিৎ মূলধন লইয়া ছাতু, ভুট্টা, লঙ্কা ও লবণের আহারে পরিতৃপ্ত হইয়া পৰ্ব্বত, নদী, গ্ৰাম, নগর অতিক্রম করিতে করিতে প্ৰাচীন পাটলীপুত্র বা বৰ্ত্তমান পাটনা নগরীতে আসিয়া উপস্থিত হইলেন। যৎকালে তিনি পাটনায় উপস্থিত হন, সে সময় সপ্তদশ শতাবঁদীর শেষভাগ। বাণিজ্যব্যবসায়ে পাটনা শ্ৰীশালিনী হইয়া উঠিয়াছে। মোগল রাজত্বে ভারতবর্ষে যে বাণিজ্যের অভাবনীয় উন্নতি হইয়াছিল। ইহা সর্ববাদিসম্মত। দেশীয় বণিকৃসম্প্রদায় ব্যতীত ইয়ুরোপীয় বণিকৃগণ তৎকালে পাটনায় কুঠী স্থাপন করিয়া সুচারুরূপে বাণিজ্যকাৰ্য্য পরিচালনা করিতেছিলেন। শোণি, গণ্ডক ও গঙ্গা সম্মিলিত হইয়া পাটনাকে বাণিজ্যকাৰ্য্যের উপযুক্ত স্থান করিয়া