পাতা:কবিতা - কেশবচন্দ্র কুণ্ডু.pdf/৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৫২
কবিতা।

দিয়া গেছে প্রাণে  আগুন জ্বেলে?
কি বা সে রমণী  কি বা সে নর,
কি বা সে আপন  কি বা সে পর,
যত কেন তেজ  গরবে র’ক
যতই কেন না  পাষাণ হ’ক,
ভালবাসা দিয়া  বুঝায়ে ব্যথা
পায়ে ধরে এনে  কহাব কথা।

সহজে বন্ধুর  প্রেমনিকেতন
সারি সারি সারি বেড়িয়া রে যেথা
কল্পবৃক্ষ গুলি  দাঁড়ায়ে রে আছে
ঘুচায়ে প্রাণের সকল ব্যথা;
ভোলা ভোলা মনে  সরল প্রাণের
ছবি গুলি যেথা হৃদয়ে লয়,
সরল ভাবের  স্বভাবে আপন
স্বভাবের রাণী সুখেতে রয়;
ত্যজি যারে আজ  আমি ঋতুরাজ
আহা সে সুখের জনমভূমি,
ভূতের মতন  ঘুরিতে ফিরিতে
শুধু এ ধরায় আমি আসিনি।