পাতা:কবিতা - কেশবচন্দ্র কুণ্ডু.pdf/৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৬৪
 


পাগলী।

চোখে লয়ে জল
হাসে খল খল
শুধালে পাগলী কয় না কথা;
বোঝালে বোঝে না প্রাণের ব্যথা;
ধূলা মেখে তার সোনার গায়
কে জানে সে যে কি আমোদ পায়।

ভরা সে যৌবনে রূপের ছবি
স্বভাবে পাগলী সুখের কবি,
আলো করে বসি রূপের হাটে
কত ছড়া কাটে দীঘীর ঘাটে।

সুখে দুখে মুখে মাখান হাসি
যে দেখে সে বলে ভালই বাসি,
পাগলী কিছু না কাহারে চায়
যতন করিলে পালায়ে যায়।