পাতা:করিম সেখ - জলধর সেন.pdf/৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Qbro করিম সেখ করিয়াছিল, বিপদে পড়িয়া বসিরের স্ত্রী নরম হইবে। পূর্বের সমস্ত কথাই তখন তাহার মনে হইল। বিষন্ন মনে সে বলিল, “তা বেশ, তাই হবে। বৌয়ের এখন বুদ্ধির ঠিক নেই, এখন কি তার কথায় কাণ দিতে আছে। তা যাক, আমি রোজই আসব, বীেকেও নানা রকমে শান্ত করবার চেষ্টা করব। অদৃষ্ট যদি দুঃখই না থাকবে তা হ’লে কি বসির ভাই এমন ক’রে ছেড়ে যায়।” এই বলিয়া করিম কঁাদিতে লাগিল । করিমের কাতরতা ও চক্ষুর জল দেখিয়া বুড়ীর প্রাণ গালিয়া গেল। সে বলিল “বাবা, সবই আদৃষ্টের ফল। এখন তুমিই আমাদের বল ভরসা। বৌয়ের কথায় কিছু মনে ক’রো না ; ছেলে মানুষ, না বুঝতে পেরে যা হয় একটা ভেবে ব’সে डigछ ।” করিম বলিল “না, তাতে কি আমি দুঃখ করছি। যখন যা দরকার হবে তুমি আমাকে বোলো, আমি তা এনে দিয়ে যাব। আর বেীকে তুমি যা বলতে হয় বোলো।” এই বলিয়া করিম চলিয়া গেল। বসিরের স্ত্রী তখন কাৰ্য্যান্তরে ব্যস্ত ছিল। করিমের সহিত তাহার শাশুড়ীর কি কথা হইল তাহ সে শুনিতে পাইল না । করিম চলিয়া যাইবার পর বীে যখন বুড়ীর নিকট আসিল, তখন বুড়ী বলিল “বোমা, করিম এসেছিল। তাকে আমি ব’লে দিয়েছি যে, তার কাছে আমরা কিছু চাইনে, যেমন ক’রে হোক আমাদের দিন কেটে যাবে। কথাটা শুনে সে কঁদতে লাগল। আহা ! করিম ছেলেটা বড় ভাল। তার কান্না দেখে আমার বড় দুঃখ হোলো ; আমার বসিরকে সে আপনার ভাইয়ের মত ভাল বাসত।