পাতা:কল্পদ্রুম তৃতীয় খণ্ড.djvu/৩০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সংসারী ভারতের প্রতি । Oe S) ভারত সম্পূর্ণ উদাসী । সংসার যেন ভারতের ছদ্মবেশ। মায়া করিয় ! মায়াবী যেমন তাহার অন্তরের কার্য্য সাধন করে,সংসারিরূপ মায়াবী সাজিয়। ভারতও যেন ঠিক তাই করিতেছে । পিঞ্জরে যেমন পার্থী, কারাগারে যেমন রাজা, সংসারেও ভারত সেইরূপ একটী পদার্থ। যেমন রাজার মন কারাগারে নয়, রাজত্বে ; যেমন পাখির মন পিঞ্জরে নয়,কাননে ; তেমনি ভারতের মনও সংসারে নয়, ঔদাসে । সংসার যদি তাহার মনের হইত, সে যদি সংসার শব্দের প্রকৃত অর্থ বুঝতে পারিত, তাহলে কি সংসারী ভারতের এইরূপ দুর্দশ আমরা দেখিতে পাইতাম ? তাহলে কি ভারত সংসারী হইয়া ঔদাস্যকে তাহার অন্তঃকরণে স্থান দিত ? কখনই না সম্যক সার এই অর্থ দিয়া আর্য্যের যে সংসার শব্দের স্বষ্টি করিয়াছেন, ভারত তাহা ভুলিয়া গিয়াছে। যাহা সম্যক, সার, যে সংসার, ধৰ্ম্ম অর্থ কাম ও মোক্ষ সাধনের একমাত্র উপায়, তাহাকেই ভারত সম্পূর্ণ অসার ও অনর্থের মূল বলিয়া স্থির করিয়াছে। কি ভোজনে, কি গৃহনিৰ্ম্মাণে, কি শয়নে, কি বিষয়ে, কি বিবাহে, সংসারের কিছুতেই আর ভারতের মন নাই। মন দিয়া ভারত এ সকলের কিছুই করে না। আমরা যদি পৃথিবীর অন্যান্য বিভাগের সহিত ভারতের তুলনা করিয়া দেখি, তাহা হইলে তাহৰে পৃথিবীর বলিয়। বোধ হয় না । কারণ, সমস্ত পৃথিবীই সংসারের श्रृंथ ७ ८नोमहर्षी ८भांश्डि श्ग्रां ब्रांखि निम ठाशंद्रशे डेब्रठिनांथरम मिब्रउ কত যত্ন ও পরিশ্রম করিতেছে, তাহা বলিয়া শেষ করা যায় না। যাহা কিছু মুখ, যাহা কিছু ধৰ্ম্ম, যাহা কিছু কাম ও অর্থ, যাহা কিছু মোক্ষ, তাহা যে এই সংসারেই নিহিত, তাহা ভারত ব্যতীত সমস্ত পৃথিবীই বিলক্ষণরূপে হৃদয়ঙ্গম করিতে পারিয়াছে। ঈশ্বরের কি চমৎকার মহিমা ! সময়ের কি আশ্চৰ্য্য গত্তি । উহার আবর্তনে নিমিষ মধ্যে ঘাট অঘাট এবং অঘাটও ঘাট হইয়া থাকে। যে ভারত পৃথিবীর সর্বাগ্রে সংসারের প্রকৃত অর্থ বুঝিতে পারিয়া ঘোর সংসারী হইয়াছিল, যাহার নিকটে পৃথিবী সংসার ধৰ্ম্ম শিক্ষা করিয়াছে বলিলে অত্যুক্তি হয় না ; সেই ভারত আজ সংসারের একটা কাৰ্য্যও মন দিয়া সুন্দর করিয়া করে না। ষে সংসারে মনুষের জন্ম, সেই আজ তাহাকেই মিথ্য জ্ঞানে সৰ্ব্বদা পরিত্যাগ করিতে চায়। - প্রাচীন ইতিহাসের পর্যালোচনা করিলে দেখিতে পাওয়া যায়, শুকদেৰ প্রভৃতি কত শত মহাত্মা এই পৃথিবীতে জন্ম গ্রহণ করিয়া সংসার পরি