পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/২০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সোনার তরী স্নেহ-সুধামাখা বাসগৃহতল আরো আপনার হবে । প্রেয়সী নারীর নয়নে অধরে আরেকটু মধু দিয়ে যাব ভরে’ আরেকটু স্নেহ শিশুমুখ পরে শিশিরের মত র’বে । না পারে বুঝাতে আপনি না বুঝে মানুষ ফিরিছে কথা খুজে খুজে, কোকিল যেমন পঞ্চমে কুজে মাগিছে তেমনি সুর ; কিছু ঘুচাইব সেই ব্যাকুলতা, কিছু মিটাইব প্রকাশের ব্যথা, বিদায়ের আগে দু’ চারিটা কথা রেখে যাব সুমধুর । থাক হৃদাসনে জননী ভারতী তোমারি চরণে প্রাণের আরতি, চাহি না চাহিতে আর কারো প্রতি, রাখি না কাহারো আশা । কত স্থখ ছিল হ’য়ে গেছে দুখ, কত বান্ধব হয়েছে বিমুখ, স্নান হ’য়ে গেছে কত উৎসুক উন্মুখ ভালবাসা । >b”8