পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/৪৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কথা ও কাহিনী তা’র নিত্য জাগরণ ; অগ্নিসম দেবতার দান উদ্ধশিখা জ্বালি চিত্তে অহোরাত্র দগ্ধ করে প্রাণ । অস্তে গেল দিনমণি । দেবর্ষি নারদ সন্ধাকালে শাখাতুপ্ত পার্থীদের সচকিয়া জটারশিজোলে, স্বগের নন্দনগন্ধে অসময়ে শ্রান্ত মধুকরে বিস্মিত ব্যাকুল করি, উত্তরিলা তপোভূমি পরে । নমস্কার করি কবি, শুধাইলা সঁপিয়া আসন— কি মহৎ দৈবকার্য্যে দেব, তব মর্ত্যে আগমন ? নারদ কহিলা হাসি—করুণার উৎসমুখে, মুনি, যে ছন্দ উঠিল উদ্ধে, ব্রহ্মলোকে ব্রহ্মা তাহ শুনি আমারে কহিলা ডাকি, যাও তুমি তমসার তীরে, বাণীর বিদ্যুৎ-দীপ্ত ছন্দোবাণবিদ্ধ বাল্মীকিরে বারেক শুধায়ে এস,—বোলো তারে, ওগো ভাগ্যবান, এ মহা সঙ্গীতধন কাহারে করিবে তুমি দান । এই ছন্দে গাথি ল’য়ে কোন দেবতার যশঃকথা স্বগের অমরে কবি মর্ত্যলোকে দিবে অমরতা ? কহিলেন শির নাড়ি ভাবোন্মত্ত মহামুনিবর, । দেবতার সামগীতি গাহিতেছে বিশ্বচরাচর, ভাষাশুন্য অর্থহারা । বহ্নি উদ্ধে মেলিয়া অঙ্গুলি ইঙ্গিতে করিছে স্তব ; সমুদ্র তরঙ্গবাহু তুলি 888