পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৭৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ਜੋ ]ੈ। ধরং বিভূম জটাবরং টােগ্রভেৱং বালার্কমিৰ। १२:० ত্রিভুবনে প্রতিষ্ঠিত র্তাহার সম্পদ । দারুণ বিধাতা এত করিল আমাকে । সাক্ষাৎ ব্ৰহ্মার যিনি ছিল সভাসদ ॥ কোথায় ত্যজিয়া আমি যাই সে সবাকে । মহাধৰ্ম্মশীল ভীষ্ম মহাতেজোময় । সাত্যকি চাপিল রথে হরষিত চিতে । তিনি সব ঘুচাবেন তোমার সংশয় ॥ কোলাহল করিয়া চলেন হস্তিনাতে ॥ তার দরশনে দূর হবে অমঙ্গল। ভীম করে সিংহনাদ পেয়ে মনে প্রীত। শুনিলে জ্ঞানের কথা হইবে নিৰ্ম্মল তাহ দেখি গান্ধারীর হৃদয় দুঃখিত। শোক ত্যজ মহারাজ শান্ত কর মন শীঘ্ৰগতি দ্বারী গেল হস্তিনানগরে। হস্তিনাতে কর গিয়া প্রজার পালন ॥ ধৰ্ম্ম আগমন জানাইল সবাকারে ॥ অনাথ ব্রাহ্মণ সব চাহেন তোমাকে । দূতমুখে সম্বাদ পাইল পাত্ৰগণ । তোমার কারণে নিত্য কাদে প্রজালোকে সবে মেলি করে তবে নগর সাজন ॥ । অবশেষ যত আছে পৃথিবীর পতি। উপাসনা হেতু আছে শুন নরপতি ॥ এত শুনি যুধিষ্ঠির করেন সম্মতি । হস্তিনায় যাইতে দিলেন অনুমতি ॥ ধৃতরাষ্ট্র অগ্রে করি পাণ্ডুর নন্দন । , হস্তিনাপুরীতে শীঘ্র করেন গমন ॥ দিব্যরথে চড়িলেন পাণ্ডবের পতি । তাহাতে সারথি হৈল ভীম মহামতি ॥ কৃষ্ণাৰ্জ্জুন রথেতে চলেন দুইজন । সহদেব নকুল রথেতে আরোহণ ॥ ধৃতরাষ্ট্র নরপতি চাপিল বিমানে । সঞ্জয় যুযুৎস্থ আদি চলে সব জনে ॥ কুন্তী ও গান্ধারী আদি নারীগণ যত। হস্তিন গমনে সবে চাপিলেক রথ ॥ শোকেতে গান্ধারী দেবী নেউটিয়া চায়। দুৰ্য্যোধন বলি দেবী কান্দে উভরায় ॥ থাক্ কুরুক্ষেত্রে মম শতেক নন্দন। আমি অভাগিনী যাই আপন তবন ॥ চান্দোয় চামর আনি টাঙ্গাইল পথে । প্রবাল মুকুতাদাম শোভে চারিভিতে ॥ বান্ধিল তোরণ সব বড় উচ্চ করি । কদলী রোপণ করিলেক সারি সারি ॥ পুষ্পমালা বনমালা নগরে নগরে। সুবর্ণের ঘট শোভে দুয়ারে দুয়ারে ॥ রাজমার্গ স্বসংস্কার করিল যতনে । সুবাসিত কৈল পথ অগুরু চন্দনে ॥ হস্তিনানগরে যত আছয়ে ব্রাহ্মণ । ধৰ্ম্ম আগমন শুনি আনন্দিত মন ॥ আনন্দেতে নানা বাদ্য সবে বাজাইল । শুভক্ষণে ধৰ্ম্মরাজ পুরে প্রবেশিল ॥ বিজয় পাণ্ডব-কথা অমৃত লহরী। কাহার শকতি ইহা বর্ণিবারে পারি ॥ অবহেলে শুনে যেন সকল সংসার । কাশীরাম দাস কহে রচিয়া পয়ার ॥ অপূৰ্ব্ব ভারত-কথা পুরাণ প্রধান। এতদূরে নারীপৰ্ব্ব হৈল সমাধান ॥ নারীপৰ্ব্ব সমাপ্ত।