পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৮৫০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


tురిr • নিত্য ষষ্ঠীর ধ্যান-ষষ্ঠাংশাং প্রকৃতে শুদ্ধাং— [ মহাভারত। কহিল আপন কথা করিয়া বিনয় । মহামুনি নারদ গেলেন যমালয় ॥ নারদে দেখিয়া যম করিল আদির । যোগাইল পাদ্য অর্ঘ্য আসন সত্বর ॥ যম বলে কি হেতু আইলে তপোধন । মম ভাগ্যে তোমার হইল আগমন ॥ নারদ বলেন যম শুন মন দিয়া । . বীরব্রহ্মা রাজা মোরে দিল পাঠাইয়া ॥ মালিনী নামেতে তার আছয়ে তনয়া । তুমি স্বামী হবে তার আছয়ে মনয় ॥ এই হেতু আগমন তোমার গোচরে । আমার বচনে চল সরস্বতীপুরে ॥ অলঙ্ঘ্য মুনির বাক্য লঙ্ঘিতে নারিয়া । রবিন্থত যাত্র কৈল ব্যাধিগণ লৈয় ॥ যম আগমনে ব্যাধি লোকেরে পীড়িল । ব্যাধিভয়ে লোক সব দুঃখিত হইল ॥ তবে নারদেরে জিজ্ঞাসিল নরপতি । ব্যাধি হেতু প্রজানাশ কি হবে যুকতি ॥ মুনি বলে রাজা ধৰ্ম্মপথে দাও মন । ব্যাধি বল না করিবে শুনহ বচন ॥ ধৰ্ম্ম আচরণে সবে পাবে মহাস্থখ । পরম পুলকে রবে, ভুলি যত দুঃখ ॥ নারদের বাক্যে বীর ব্রহ্মা নরপতি । পাত্রমিত্র প্রজা সবে ধৰ্ম্মে দিল মতি ॥ মুনি বলে আসিবেন সূর্য্যের নন্দন । নিশ্চয় তোমার কন্যা করিবে গ্রহণ ॥ মালিনীর অভিপ্রায় বুঝিয়া অন্তরে । যম আইলেন বীরব্রহ্মার গোচরে ॥ পরিচয় আপনার কহিল রাজনে । হরষিত বীরব্রহ্মা যম আগমনে ॥ শুভক্ষণ করি কন্যা দিল নরপতি । মালিনীর সঙ্গে হুৈল পরম পরিতি ॥ মহাভারতের কথা অমৃত সমান । কাশীরাম দাস কহে শুনে পুণ্যবান ॥ ───────ས།། কৌণ্ডিগুপুরে পাওবের প্রবেশ ও চন্দ্রহংস রাজার কথ। । বলেন বৈশম্পায়ন শুন জন্মেজয় । কৌণ্ডিস্যনগরে গেল পণ্ডিবের হয় ॥ ধৃষ্টবুদ্ধি নামেতে রাজার পাত্র ছিল । কালকূট মিশাইয়া রাজারে মারিল। আপনি করয়ে রাজ্য বসি সিংহাসনে । জন্মিয়াছে চন্দ্রহংস ইহা নাছি জানে ॥ তবে ধৃষ্টবুদ্ধি মন্ত্রী বিরলে বসিয়া । মদনে লিখিল পত্র যতন করিয়া ॥ শুন জন্মেজয় রাজা পত্রের লিখন । খলের নিৰ্ম্মল মতি নহে কদাচন ॥ স্বস্তি আগে লিখিয়া লিখিল আশীৰ্ব্বাদ । শুনহ মদন তুমি আমার সম্বাদ ॥ চন্দ্রহংসে পাঠাইনু তব বিদ্যমানে । যাবামাত্র বিষ দান করিবে যতনে । তোমার মঙ্গল হবে এ কৰ্ম্ম করিলে । নহে পুত্র দুঃখ পাবে অবশেষকালে ৷ কদাচিত না লঙিঘবে আমার বচন । আমি ত পশ্চাতে যাব নিজ নিকেতন ॥ আমার অপেক্ষা কদাচিত না করিবে । যাবামাত্র চন্দ্রহংসে বিষদান দিবে ॥ পত্র লিখি পরে তাতে এক চিহ্ন দিল । চন্দ্রহংস হাতে দিয়া বিশেষ কহিল ॥ শুন চন্দ্রহংস তুমি বিষ্ণুভক্তজন । মদনে লিখিমু আমি বিশেষ কথন ॥ না পড়িবে এই পত্র নিষেধিলু আমি । মদনেরে পত্ৰ দিয়া তত্ত্ব আন তুমি ৷ শিব বিষ্ণু ভেদ কৈলে যত পাপ হয়। এ পত্র পড়িলে হবে কহিমু নিশ্চয় । এত বলি পত্র দিল চন্দ্রহংস হাতে । কলিঙ্গ নন্দন তাহ রাখিলেন মাথে । চন্দ্রহংস যাত্রা করিলেন শুভক্ষণে । মন্ত্রীর নগরে গেল আনন্দিত মনে ॥ নিদাঘ সময়ে সেই প্রথম জ্যৈষ্ঠমাসে । দেখিলেন উপবন নগর প্রবেশে " ।