পাতা:গল্পাঞ্জলি.djvu/১০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ꮬ8 গল্পাঞ্জলি তাচ্ছিলোর সহিত ধূতি ফেলিয়া দিয়া, হেলিতে দুলিতে সে স্থান পরিত্যাগ করিয়া গেল। রাইচরণ কত ডাকিল—“বাবু—ও বাবু মশায়— আপনি কত দেবেন ?—আপনি কত বলেন বাবু ?”— কিন্তু বৃদ্ধ আর ফিরিয়াও চাহিল না । রাইচরণ মুখখানি মান করিয়া বসিয়া রহিল। বাড়ী ফিরিবার জন্ত তাহার প্রাণ ছট ফট করিতেছে। তাহার তিন বৎসরের মেয়ে পুটুমণি ও পাঁচ বৎসরেব ছেলে হরিদাস, সকালে এক পয়সার মুড়কি কিনিয় তাহাই ভাগ করিয়া খাইয়াছিল। এতক্ষণ ভাতের জন্ত তাঙ্গার কত না কাদাকাটি করিতেছে। তাহার স্ত্রীর জন্ত ও দুইটি গাব সে রাখিয়া আসিয়াছিল, সে দুটি হতভাগিনী খাইয়াছে কি ? এই সকল কথা ভাবিতে ভাবিতে রাইচরণের কোটরগত চক্ষু ছল ছল করিতে লাগিল । অথচ চিরদিন তাহার এ অবস্থা ছিল না । রাইচরণের পিত কৃষ্ণদাস বসাক একজন সম্পন্ন গৃহস্থ ছিল । তাহার পাকাবাড়ী ছিল, পুষ্করিণী ছিল, একশত বিঘা ধানের জমি ছিল। গৃহে অনবরত দশখান। তাত চলিত—বেতন ভোগী ভূত্যেরা সে তাত চালাইত । কৃষ্ণদাসের জীবিতকালেই ম্যাঞ্চেষ্টারের কৃপায় অধিকাংশ তাত বন্ধ হইয়া গিরাfছল বটে, কিন্তু তথাপি গুহে কখনও অন্নাভাব হয় নাই। এমন কি বংশানুক্রমে যে সকল পূজা-পাৰ্ব্বণ হইয়া আসিতেছিল, তাহাও নিৰ্ব্বাহিত হইত। রাইচরণ সাবালক হইবার পূর্বেই তাহার পিতার মৃত্যু হয় শ্ৰসে আজ পচিশ বৎসরের কথা । এখন আর তাহার সে পাকাবাড়ী নাই—সংস্কারাভাবে ইষ্টকের ভগ্নস্তুপ হইয়া পড়িয়া আছে। তাহার পাশেই রাইচরণ মৃত্তিকার কুটার তুলিয়াছে। সে একশত বিঘা জমির মধ্যে তিন চারি বিঘা মাত্র অবশিষ্ট আছে—বাকী সমস্ত ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয় নিলামে খরিদ করিয়া লইয়াছেন। বাগান, পুকুর সমস্তই ঐ রূপে