পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


3。 গল্প-গ্রন্থাবলী BBB DDD DS GGGDD DD BBB DDD DDDDDD DBB DDDD DDD आनिम्नझिरजन; अभ्षाजिकाग्न निष्ठा बिछम्ननिरश् एय उाँशब्रट्टे अक्षौनन्ध uकजन ऋछ जाधव्ठ প্রজা, ধনে মনে কুলমৰ্য্যাদায় যে তাঁহার বহন নিচ্ছেন, সে কথা গণমার মধ্যে আনেন লাই। কাবল বিদ্রোহ দমন করিয়া, প্রায় একপক্ষকাল মহারাজ মানসিংহ গহে ফিরিয়াছেন, কিন্তু আজিও রাণী অবালিকা তাঁহার দশন পান নাই। অদ্য রজনীতে মহারাজ এই মহালেই বিশ্রাম করিবেন, এইরুপ সংবাদ আছে। কিন্তু আপাততঃ রাণী অম্বালিকার উৎকণঠার কারণ, স্বামীর উপেক্ষা বা আগমন-বিলবে নহে। মহারাজের কাবলে অবস্থিতি সময়ে, রাণীর পিত্রালয় হইতে সংবাদ আসে, তাঁহার জনক বিজয়সিংহ অত্যন্ত পীড়িত, তাঁহার জীবন সংশয়; মৃত্যুকালে প্রিয় দহিতাকে একবার দেখিবার জন্য তিনি ব্যগ্র হইয়াছেন। রাণীদের পিয়ালযে গমন তখনকার দিনে রাজাবরোধের একান্তই নিয়মবিরািন্ধ ছিল। বিশেষ কারণ উপস্থিত হইলে মহারাজের হুকুম লইয়া রাণী কাঁচৎ কখনও পিতৃগহে যাইতেন। মহারাজ অনুপস্থিত, অবালিকা তাই পট্টমহাদেবীর (বড় বা পাটরাণীর) পদতলে কাঁদিয়া পড়িলেন। তিনি হুকুম দিলেন; অশ্বালিকা পিতৃগহে গমন করিলেন। সেখানে মাসাধিককাল থাকিয়া, পিতৃসেবায় তাঁহাকে স্পৰ্থ ও নিরাময় করিয়া, অলপদিন হইল ফিরিয়াছেন। মহারাজের কাবুল হইতে প্রত্যাবৰ্ত্তন সংবাদ শুনিয়াই তাড়াতাড়ি চলিয়া আসিয়াছেন। এখন বিষম চিন্তা, এই পিত্রালয়-গমন সংবাদ শুনিয়া মহারাজ কি বলিবেন । একজন সুবেশা পরিচারিকা আসিয়া প্রবেশ করিল। দেবীর পশ্চাতে দাঁড়াইয়া সে ডাকিল, “রাণীজী !” রাণী চমকিয়া, মুখ ফিরাইয়া পরিচারিকার পানে চাহিলেন । পরিচারিকা, রাণীর দুশ্চিন্তার কারণ অবগত ছিল। কহিল, “মহারাজ কি এক প্রহর রাত্রির পাবে আসিবেন ? এখন হইতে এমন করিয়া বসিয়া থাকিযা নিজেকে ক্লান্ত করিতেছেন কেন ?” রাণী বলিলেন, “অত রাত্রি হইবে কি ?” “তা আর হইবে না? যখন আসেন, এক প্রহর দেড় প্রহর রাত্রির পর্বে কবে আর আসিয়া থাকেন ?” “কেন মিনা, একদিন ত ছিল যখন তিনি সন্ধ্যা না লাগিতেই আসিতেন !”—বলিয়া রাণী একট বিষাদের হাসি হাসিলেন! পরিচারিকার নাম মণালিনী-সংক্ষেপে মিনা। এই দাসী, রাণী অম্বালিকার পিত্রালয় বিজয়গড় গ্রামেরই একজন দরিদ্র বিধবা ; রাণীর বিবাহের পর তাঁহার সঙ্গে এখানে আসিয়াছে। মিনা বলিল, “সে সব দিনের কথা ছাড়িয়া দিউন রাণীজী !” রাণী একটি দীঘনিঃশ্বাস ফেলিয়া বলিলেন, “সে ত অনেকদিনই দিয়াছি । তব: সে সব দিনের কথা স্মরণেও সুখ ! প্রথম যখন আমায় বিবাহ করিয়া আনেন, তখন ত্তোর মনে আছে মিনা ? তখন চারি-পাঁচ-ছয় রাত্রি পযর্ণন্ত, অবিচ্ছেদে, আমার পজা গ্রহণ করিতেন। তুiার এখন ? মাসে একদিন দশন পাই কিনা সন্দেহ ।” দাসী বলিল, “তখন আপনিই ছিলেন সবচেয়ে নতন রাণী। তার পর, এই ১৫ বছরে মহারাজের আরও কতগুলি মহিষী হইয়াছে বলন দেখি ?” রাণী বলিলেন, “গড়ে বছরে তিনটি।” “তবে কেন ব্যস্ত হন রাগীমা ?” রাণী অবনত নয়নে উত্তর করিলেন, “আমি কি আর বুঝি না ? সবই বাকি ! এই <श्९ शृचन्द्रौरठ, उिनि ख्यि श्राशाब्र आव्र एक श्राटइ बल ? आधाव्र र्याम धकद्वैि नन्ठान