পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


令钧 গল্প-কথাবলী - किण्डू कभटष् । रमजा छ धान्न थिर्गमण झटग्न ४ञ कि ना ॥ ८लाक जीब्र एडभन कई ?” তাহার পর তাসখেলা আরম্ভ হইল। সেদিন নরহরির বাড়ী পেপছিতে সন্ধ্যা হইল। সমস্ত দিন আহার হয় নাই— কুসুম তাড়াতাড়ি গা ধইরা আসিয়া আলভাতে ভাত চড়াইয়া দিল। আহারের সময় নরহরির মনে হইতে লাগিল, সে যেন কুকুরের ছোঁয়া ভাত খাইতেছে। খাইয়া তৃপ্তি হইল না ; পরা খাইতেও পারিল না ; অন্ধেক পাতে ফেলিয়া উঠিয়া পড়িল । আচমন করিয়া পাণ মুখে দিয়া নরহরি বিছানায় শয়ন করিল। কুসম আসিয়া তামাক সাজিয়া দিল। বিছানায় বসিয়া তামাক খাইতে খাইতে নরহরি বলিল, “যাও আর দেরি কোর না—খেয়ে এসে শায়ে পড়, সারাদিন গরর গাড়ীর ঝাঁকানিতে শরীর একেবারে এলিয়ে গেছে—আমি ত ঘামে চোখে দেখতে পাচ্ছিনে ৷” কুসম রান্নাঘরে চলিয়া গেল। স্বামীর থালার নিকট দাঁড়াইয়া ভাবিতে লাগিল, “কি করবো ? পাতে আর খাব কি ? কায়েতের মেয়ে হয়ে শেষে বাগদীর এ‘টোটা খাব ?” —আবার ভাবিল, “আর জন্মেই বাগদী ছিল, এ জন্মে ত কায়েত। আর হাজার হোক স্বামী ত বটে ; থাই না হয় !” হোসেল হইতে আর কিঞ্চিৎ ভার-তরকারী আনিয়া পাতে ঢালিয়া লইয়া কুসুম খাইতে বসিল। কিন্তু বাগদীর উচ্ছিণ্ট খাইতেছি মনে করিয়া তাহার গা-টা কেমন “ঘিন ঘিন” করিতে লাগিল। কোন মতে আহার শেষ করিয়া কুসমে উঠিল। কাজ কৰ্ম্ম সারিয়া শয়নম্বরে গিয়া দেখিল স্বামী বিছানার অপর প্রান্তে পাশবালিশ অাঁকড়াইয়া পিছ ফিরিয়া নিদ্রিত। তাঁহার নিঃশ্বাস বেশ গভীরভাবে পড়িতেছে। কুসুম পাণ খাওয়া শেষ করিয়া, বাহিরে গিয়া কুলকুচা করিয়া, মাখ ও জিহৰা পরিস্কার করিয়া লইল । তাহার পর বার রন্ধ করিয়া প্রদীপ নিবাইয়া, ধীরে ধীরে শষ্যায় উঠিয়া শয়ন করিল। স্বামীর গায়ে হাত দিয়া মদবেরে জিজ্ঞাসা করিল, “ওগো, ঘমেলে ?” কোনও উত্তর নাই। কুসমে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করিয়া দ্বিতীয়বার জিজ্ঞাসা করিল, *ঘমলে নাকি ?” - উত্তর নাই। কুসমে তখন স্বামীকে গভীর নিদ্রায় নিমগ্ন বকিয়া, জিহৰা দ্বারা ধীরে ধীরে তাহার পাঠদেশ লেহন করিতে লাগিল। হাঁ, নোনতা ত বটেই। পিঠে ননের বস্তা না বহিলে কি কারও পিঠ এত লবণাক্ত হইতে পারে ? বাবাজীর কথায় কুসুমের মনে একটু যাহা সন্দেহ ছিল, এতক্ষণে তাহা দরেীভূত হইল। সে একটি দীর্ঘনিশ্বাস ফেলিয়া উঠিয়া বসিল। কিছুক্ষণ বসিয়া রহিল, বসিয়া বসিয়া ভাবিতে লাগিল, এবং তাহার দই চক্ষ দিয়া জল পড়িতে লাগিল। তাহার পর খাট হইতে নামিল। প্রদীপ জনালিয়া, বার খালিয়া বাহিরে গেল। নরহরি মাথা তুলিয়া একবার স্বারের দিকে চাহিল, পীর শাড়ীর পশ্চাদভাগমাত্র দেখিতে পাইল। ভাবিল, "এত রাত্রে আবার চললেন কোথায় ? হাড়-টাড় চিবতে নাকি ?”— বারান্দায় জলের শব্দ শুনিল, কুসমে কুলকুচা করিতেছে। নরহরি আবার উপাধানে মন্তক झिझा निष्ठान्न छाण कर्गझठा । কুসুম ঘরে আসিয়া পাণ খাইয়া শয্যার প্রান্তদেশে সঙ্কুচিতভাবে শয়ন করিল এবং अश्”कक्ष श्रह्थाई निष्ठिऊ इईब्रा नफ़िल। नब्रशब्रि उथन छैठिंब्रा बाहिरव्रणिम्ना छल-शरष्ठ পিঠের চাটা অংশটুকু বেশ করিয়া ধইরা আসিয়া শয়ন করিল।