পাতা:গীতিমাল্য-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।


৬৩

আমার ভাঙা পথের রাঙা ধুলায়।
পড়েছে কার পায়ের চিহ্ন।
তারি গলার মালা হতে
পাপড়ি হােথা লুটায় ছিন্ন।
এল যখন সাড়াটি নাই,
গেল চ’লে জানালো তাই,
এমন করে আমারে হায়
কে বা কাঁদায় সে জন ভিন্ন॥

তখন তরুণ ছিল অরুণ-আলো,
পথটি ছিল কুসুমকীর্ণ।
বসন্ত যে রঙিন বেশে
ধরায় সেদিন অবতীর্ণ।
সেদিন খবর মিলল না যে,
রইনু বসে ঘরের মাঝে,
আজকে পথে বাহির হব
বহি আমার জীবন জীর্ণ।

১৫ ফাল্গুন [১৩২০]

কুষ্টিয়ার মুখে
পাল্কিপথে

৮২