পাতা:গুঞ্জন - বিজন কুমার আচার্য্য.pdf/৩৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

هيغ يعا . ঘড়ির দিকে পড়লে চোখ, বাঙ্গতে চলে ন’ট আসবে এবার কন্ধে নিয়ে, দেখব রূপের ছটা । সোনার অঙ্গে ছোপ লেগেছে, মেটে মেটে রঙ, কঁাচা সোনায় খাদ মিশেছে, তামার একটু ঢঙ, খেজুর গাছের সেঁজে রস, নয়কে সেট তাড়ি যৌবনেতে ছিলই যেটা একটু বাড়াবাড়ি। চোখের দৃষ্টি এখন যেন মাটির পিদিম জ্বালা তড়িৎ-শিখা ছিল তখন পরালে যবে মাল ॥ কপালেতে বলি রেখার একটু আভাস যেন তিলের পাশে টোল খাওয়া ঐ গাল দুটিতে কেন নেইকো সে রঙের আভাস, নীল শিরাটির পাশে আজকে তারা মিলিয়ে গেছে কালেরি নিঃশ্বাসে । টিকের আগুন উঠছে জ্ব’লে দিচ্ছ যখন ফুতারি আভায় রূপটি দেখে মন ব’লছে, হু । ফেলনা মোটে নয়কে এটা, কাব্য লেখা চলে আফসোসেতে ম’রতে হ’তে দেখিনিক ব’লে ৷ উমলি