পাতা:চন্দ্রশেখর- বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চন্দ্রশেখর। بالاد যত বৎসর, সই শব্দ শুনে নাই, শৈবলিনীর সেই এক মন্বন্তর’। এখন শুনিয়া"শৈবলিনী সেই অনন্ত জলরাশির মধ্যে চক্ষু মুদিল । মনে মনে চন্দ্র তারাকে সাক্ষা করিল । চক্ষু মুদিয়া বলিল, “প্ৰতাপ ! আজিও এ মরা গঙ্গায় চাদের অালো কেন ?” প্রতাপ বলিল, “চাদের ? না । স্বৰ্য্য উঠিয়াছে —শৈ । আর তর নাই। কেছ তাড়াইয়া আসিতেছে না ।” শৈ। তবে চল তীরে উঠি । ' «εί ι δη ! শৈ । কি ? প্র । মনে পড়ে ? শৈ । কি? প্র । আর একদিন এমনই সীতার দিয়াছিলাম। শৈবধিনী উত্তর দিগ না । এক খণ্ড বৃহৎ কাষ্ঠ ভাসিয়া बाईडश्नेि ? শৈবলিনী তাহ ধরিল । প্রতাপকে বলিল, “ধর, তর সহিবে। বিশ্রাম কর।” প্রতাপ কাষ্ঠ ধরিল । বলিল, “মনে পড়ে ? তুমি ডুবিতে পারিলে ন-আমি ডুবিলাম ?” শৈবলিনী বলিল, “মনে পড়ে - তুমি বলি আবার সেই নাম ধরিয়া আজ না ডাকিতে, তবে আজ তার শোধ দিতাম। কেন ডাকিলে ?” প্রতিতে মনে আছে যে, আমি মনে করিলে ডুবিতে পারি ? • শৈবলিনী শঙ্কিত হইয়া বলিল, “কেন প্রতাপ ? চল তীরে উঠি ।” `, এ। আমি উটু না। আৰুি মৰিব।. প্রতাপ কাষ্ঠ ছাড়িল । o