পাতা:চিঠিপত্র (চতুর্থ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


, 9 লণ্ডন এপ্রিল ১৯১৩j মারু আমরা আটলান্টিক পার হয়ে লণ্ডনে এসে পৌঁছেছি। যে জাহাজে আমরা এসেছি সেটা বোধ হয় আজকাল পৃথিবীর সকল জাহাজের চেয়ে বড়। যে ডেকে আমাদের ক্যাবিন ছিল সেটা হচ্চে পাচতলার ডেক— অর্থাৎ তার উপরের আরো চারতলার ড়েক আছে--- আবার আমাদের ডেকের নীচেও আরো অনেক ডেক। এর থেকে বুঝতে পারবি জাহাজট উচুতে আমাদের জোড়াসাঁকোর বাড়ির চেয়েও বেশি – আর লম্বায় এক মাইলের পঞ্চম ভাগ, অর্থাৎ শান্তিনিকেতনের বাড়ি থেকে বাঁধ পর্যন্ত হবে । তা ছাড়া এর মধ্যে আরামের আমোদের আহারের বিহারের যে কত বিচিত্র ও প্রচুর ব্যবস্থা আছে সে বলে শেষ করা যায় না । কেবলমাত্র ছদিনের জন্যে এত হাঙ্গামা করবার কি যে দরকার অাছে আমরা ত তা ভেবেই পাই না । এবারে সমুদ্রে দোলা নিতান্ত কম দেয়মি-– কিন্তু জাহাজটা প্রকাণ্ড বলে তাকে কাবু করতে পারেনি— আমার এবার এক দিনের জন্যেও সীসিক্নেস্থ হয়নি। লণ্ডনে এসে পৌছে সুরেনের সঙ্গে দেখা হয়েছে— সে প্রায় রোজই আমাদের হোটেলে আসে ।