পাতা:চিদ্বিলাস - বিনয় কুমার সান্যাল.pdf/৬৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৬১
উপসংহার।

হইবে। যেমন আমরা সর্ব্বাবস্থাতেই “আমি অমুক মানুষ” এই বোধের মধ্যে থাকি, সেইরূপ যেন “অহং ব্রহ্মাস্মি” ভালটাও সর্ব্বাবস্থাতে আনাদের মধ্যে দেদীপ্যমান থাকে। “আমি অমুক মানুষ” এই বোধটা যেরূপ স্বাভাবিক, “অহং ব্রহ্মাস্মি” ভাবটাকেও সেই প্রকার স্বাভাবিক করিয়া তুলিতে হইবে। অভ্যাসই ইহার সাধন।

 কি কর্ম্ম করা উচিত তৎসম্বন্ধে একটা সাধারণ ভাবে বিচার করা যাইতে পারে। অবশ্য সমস্ত কাম্য কর্ম্ম আমাদিগকে প্রথম হইতেই বিসর্জন করিতে হইবে, কারণ যে যে কর্ম্মেতে এই ক্ষণ বিধ্বংসী দেহের ও তৎসম্বন্ধীয় বিষয়ের সুখ সাধন হয় তাহা আমাদের তত্ত্বজ্ঞানের বিরোধী। বরং দ্বন্দ্বসহিষ্ণুতা অভ্যাস দ্বারা আমাদের দেহাভিমানটা দূর করিতে চেষ্টা করাই উচিত। সাধারণ হিতকর অথচ দেহের অহিতকর কর্ম্ম হইতে বিরত হওয়া এবং অনর্থক বাহাদুরী দেখাইবার জন্য দেহের পীড়াদায়ক কার্য্য করা উভয়ই তত্ত্বজ্ঞানের বিরোধী। প্রেম না থাকিলে কর্ম্ম করা চলে না;