পাতা:টেলিমেকস (পঞ্চম সংস্করণ).djvu/১৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


So টেলিমেকিস । করিয়া থাকে, ইহারা তাহাদের নিন্দ ও দ্বেষ করে। ইহার এই গৰ্ব্বে গৰ্ব্বিত যে, উহাদের হৃদয় জানো একপ পরিপুর্ণ যে, তথায় কন্দৰ্পশর কখন প্ৰবেশ করিতে পারে না। তুমি কি বিস্মৃত হইয়াছ যে, আমি তোমার রাজ্যমধ্যে জন্মগ্রহণ করিয়াছি ? আমি যে নরাধম পাষাগুদিগকে ঘৃণা করি, তাহাদিগকে বিনষ্ট করিতে তুমি কি নিমিত্ত বিলম্ব করিতেছি? এই বলিয়া বীনস স্থিরত হইবামাত্র, বরুণদেবের আদেশক্ৰমে সমুদ্রের তরঙ্গ সকল স্ফীত হইয়া অতি প্রকাও পৰ্বতের আকার ধারণ করিল। এই বারে পোতভঙ্গ ঘটিয়া আমাদের অর্ণবগর্ভপ্ৰবেশ অপরিহাৰ্য্য হইয়াছে, এই ভাবিয়া আফনান্দভরে দেবীর অধীরে হাস্য সঞ্চার হইল। আমাদের নাৰিক৷ ” হতাশ ও হতবুদ্ধি হইয়া চীৎকার করিয়া বলিল, এই দুরন্ত বাত্যায়। আর আমি কোন ক্রমেই , পোত রক্ষা করিতে পারিৰ না । সে এই বলিতে বলিতে, আমাদের পোত অনিষাৰ্য্য বেগে এক জলমধ্যগত শৈলের উপায় লীত হইল ; গুণবৃক্ষ ভগ্নী হইয়া, গেল, এবং তািলভেদ ঘটাতে অবিলম্বে জলপুর্ণ হইয়া পোত মগ্ন হুইবার উপক্রম হইল। ভূতদঃশনে নাবিক শু পোতবাহগণ চীৎকার ও আৰ্ত্তনাদ করিতে লাগিল। আমি মেণ্টরের নিকটে গিয়া ভঁাহার গলায় ধরিয়া বলিলাম, সখে! কৃতান্ত সম্মুখে উপস্থিত ; আইস, আমরা নিৰ্ভয়ে ও অবিচলিত চিত্তে তদীয় হস্তে আত্মসমৰ্পণ করি । দেবতারা নানা বিপদ হইতে আমাদের পরিত্ৰাণ করিয়া- * ছিলেন। আমি মরিতেছি বটে, কিন্তু তোমার সমক্ষে ও অমভিব্যাহারে মরিতেছি, এজন্য আমার কিছুমাত্র ক্ষোভ