পাতা:ঠাকুরমার ঝুলি.djvu/১৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

ঠাকুরমা’র বুলি 浚 Ş অসুখ সারিল না। শেষে রাণী বলিল,-“ওষুবে তো কিছু হইরে “ না, বনের সেই আমগাছ কাটিয়া তাহার তক্তার ধোয়া ঘরে দিলে। তবে আমার ব্যারাম সারিবে ।” রাজাজ্ঞা, অমনি হাজার হাজার ছুতোর গিয়া আমগাছে কুডুল মারিল —গাছের ভিতরে রাজপুত্ৰ বলিলেন,-“হে বৃক্ষ, যদি সত্যকালের বৃক্ষ হও, তো, আমাকে একটি আমের মধ্যে করিয়া ঐ পুকুরের জলে ফেলিয়া দাও ।” অমনি গাছ হইতে একটি আম টুব করিয়া পুকুরের জলে পড়িল ; তখনি এক রাঘব বোয়াল সেটিকে খাবার মনে করিয়া এক হাঁয়ে গিলিয়া ফেলিল । ছুতোরেরা আমগাছটি কাটিয়া লইয়া গিয়া তাহার তক্তা করিয়া রাণীর ঘরের চারিদিকে খুব করিয়া ধোঁয়া দিতেছে! কিন্তু রাণী সব জানিতে পারিল ; বলিল,-“না, এতেও কিছু হইল না। সেই পুকুরে যে রাঘব বোয়াল আছে, তাহার পেটে একটি আম, সেই আমটি খাইলে আমার অসুখ সারিবে ।” সিঙ্গী জাল, ধিঙ্গী জাল, সব জাল নিয়া জেলেরা পুকুরে ফেলিল ; রাঘব বোয়াল ধরা পড়িল । পেটের ভিতর আম, আমের ভিতরে রাজপুত্ৰ বলিলেন,-“হে বোয়াল, যদি তুমি সত্যকালের বোয়াল হও, তো আমাকে একটি শামুক করিয়া, ফেলিয়া দাও।” বোয়াল রাজপুত্রকে শামুক করিয়া ফেলিয়া দিল। জেলেরা বোয়াল আনিয়া পেট চিরিয়া কিছুই পাইল না। রাজা ভাবিলেন,-“আঁর রাণীর অসুখ সারিল না ? 多 SSܠ