পাতা:ত্রিদিববিজয় কাব্য.djvu/২১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১২
ত্রিদিববিজয়।

চল, দেব, ত্বরা করি, বিলম্ব না সহে।"
এতেক কহিয়া উভে লভি শুভক্ষণে
চলিলা অভয়া যথা বিজয়ার সহ
বিরাজেন বিশ্বময়ী। আসি দ্বারদেশে,
একা ইন্দ্র চলিলেন উমার সকাশে,
রহিল বাহিরে কাম না পারি পশিতে।
বিরাজেন জ্যোতির্ম্ময়ী জগদ্ধাত্রীবেশে;
করুণা পীযূষ-সিন্ধু উথলে চৌদিকে
নিরন্তর; তার মাঝে বসি বিশ্বমাতা
ভক্তিসিংহাসনে, হাসিছেন সুমধুর।
হায় রে সুহাসি যথা শিশুর অধরে
জুড়ায় তাপিত প্রাণ, বাসবে তেমতি
জুড়াইল দগ্ধ হিয়া সে শোভা নেহারি।
পাদমূলে বসিয়া বিজয়া, কোলে করি
পদযুগ, সরসী যেমতি কোলে লয়ে
কুবলয়ে শোভে ধরাতলে। নমি ইন্দ্র
ভক্তিভাবে, ভাবিলা বারেক আত্মদশা।
কাঁপিলা সভয়ে বজ্রী হেরি অভয়ারে,
কাঁপে পাপী যথা হেরি ধর্ম্মাধিকরণে।
করযোড়ে পূজিলা মায়েরে:—"হে প্রকৃতি,
জগদ্ধাত্রী, করুণারূপিণী, তুমি জ্ঞান,
তুমি বুদ্ধি, তুমি জ্যোতি, তুমি শক্তি, তুমি