পাতা:দুর্গেশনন্দিনী বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
একবিংশ পরিচ্ছেদ
খড়্গে খড়্গে

 বিমলাকে দেখিয়া জগৎসিংহ জিজ্ঞাসা করিলেন, “কিসের কোলাহল?”

 বিমলা কহিলেন, “পাঠানের জয়ধ্বনি। শীঘ্র উপায় করুন; শত্রু আর তিলার্দ্ধমাত্রে এ ঘরের মধ্যে আসিবে।”

 জগৎসিংহ ক্ষণকাল চিন্তা করিয়া কহিলেন, “বীরেন্দ্রসিংহ কি করিতেছেন?”

 বিমলা কহিলেন, “তিনি শত্রুহস্তে বন্দী হইয়াছেন।”

 তিলােত্তমার কণ্ঠ হইতে অস্ফূট চীৎকার নির্গত হইল; তিনি পালঙ্কে মূর্চ্ছিত হইয়া পড়িলেন।

 জগৎসিংহ বিশুষ্ক-মুখ হইয়া বিমলাকে কহিলেন, “দেখ দেখ, তিলােত্তমাকে দেখ।”

 বিমলা তৎক্ষণাৎ গোলাবপাশ হইতে গােলাব লইয়া তিলােত্তমার মুখে কণ্ঠে কপােলে সিঞ্চন করিলেন, এবং কাতরচিন্তে ব্যজন করিতে লাগিলেন। শত্রু-কোলাহল আরও নিকট হইল; বিমলা প্রায় লােদন করিতে করিতে কহিলেন; “ঐ আসিতেছে!—রাজপুত্র! কি হইবে?”

 জগৎসিংহের চক্ষুঃ হইতে অগ্নিস্ফুলিঙ্গ নির্গত হইতে লাগিল।