পাতা:পঞ্চক মালা - বিজয় চন্দ্র মজুমদার.pdf/১১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।



কৌতুক পঞ্চক

ভয়ানক।


কহিল রাগি’——“দেশ-তেয়াগী হইব এখনি।”
গৃহিণী শুধু মৃদুল মধু হাসিল তখনি।
বস্ত্রগুলি গুছিয়ে তুলি’ পোঁটলা বাঁধিয়া,
চলিল বেগে বেজায় রেগে গোঁপেতে তা দিয়া!”

আদি।


এগিয়ে এসে গিন্নী হেসে ধল্লে সে গুলি,
এক্‌টি হাত প্রসারি নাথে রাখিল আগুলি।

বীর।


ক্রোধে অধীর হৈল বীর, কথা না মানিল;
বেজায় জোরে আঁকড়ে ধরে বোঁচ্‌কা টানিল।
হ্যাঁচ্‌কা টানে বোঁচ্‌কা নিতে মচ্‌কে গেল হাত;
ছট্‌কে পড়ে’ সিংহ যেরে ভূমিতে চিৎপাৎ।

করুণ।


অঙ্গে ব্যথা! সিংহ কথা কহিছে কাতরে—
“হলেম খুন্‌, হলুদ চুন্‌ আনতে যাতরে!”
দুচারি-ঘটি জলের ছিটা, পাখার বাতাসে;
হলুদ-চুন-পটির গুণে তুলিল মাথা সে।

১০৭