পাতা:পঞ্চক মালা - বিজয় চন্দ্র মজুমদার.pdf/২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

পঞ্চকমালা।


মুছিয়ে বাধা, আঁধার ধাঁধা,
অন্ধে দিলে নেত্র;
জীবন-তরু। তরুণ করি গড়িলে।

(গোতমী)
[১]


এস, নয়ন পুতলি সুত,
উতলা চিত মাঝারে!
করিয়াছিলে স্তন্যপানে ধন্যা!
আজি যে তব ধর্ম্মে, নব
জন্ম লভি’, বাছারে,
হইনু,—লোক জনক! তব কন্যা!

(কথা)

শ্রীপদ-সেবা করিতে ষেবা
ছিলরে অধিকারিণী-
অগাধ যা’র চিত্ত ভরা ভক্তি,
চাহি’ শ্রীমুখ পানে, সে মূক
ভাষায় যেন কামিনী
যাচিল প্রাণে প্রাণেশ সেবা-শক্তি।

  1. এই স্থানের সম্পূর্ণ ভাবটি স্বয়ং দেবী গোতমী রচিত গাথা হইতে গৃহীত। অপদান,৩৪-৩৬।