পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/১০১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ध्ट्रर्थ अशांश। e পুস্তক “নিৰ্বাসিতের বিলাপ” শ্ৰীশচন্দ্ৰ চৌধুরীকে উৎসর্গ করিয়াছিলেন। শিবনাথ যখন চৌধুরী মহাশয়দিগের বাড়ী ছিলেন তখন ভবানীপুরের ব্রাহ্মসমাজে মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ কিম্বা আৰাধানাথ পাকড়াশী মহাশয় উপাসনা করিতে আসিতেন। শিবনাথ প্রায়ই তাঁহাদের উপদেশ শুনিতে যাইতেন। এই চৌধুরী মহাশয়দের বাড়ীতে থাকিবার সময়ই তঁহার ডাক্তার মহেন্দ্রলাল गराळ সঙ্গে আলাপ হয়। মজিলপুরে যে সময় বালিকা বিদ্যালয়ের জমি লইয়া-ব্ৰাহ্ম যুবক কালীনাথ, হরানন্দ, উমেশচন্দ্ৰ শিবকৃষ্ণ দত্ত প্রভৃতির সহিত দত্ত-জমিদাব বাবুদিগের তুমুল যুদ্ধ হয় তখন শিবনাথ ভবানীপুরে চৌধুরী বাবুদিগের বাড়ীতে থাকেন। মকদ্দমার ফলে যখন আলিপুবে জমিদার বাবুদিগের ভূত্য শুকর মোল্লার কয়েদ হয়, তখন হরনাথবাবুর অনুরোধে প্ৰতি রবিবার শিবনাথ শুক থ শুকর মোল্লাকে মিঠাই খাওয়াইতে জেলে ১৮৬৪ শালে আশ্বিন মাসে শিবনাথ মহেশ চৌধুরী মহাশয়ের যাইবার সময় যে মহাঝড়ের মুখে পন্ন ছিলেন, তাহার বিবরণ औक्नोल्ड লিখিয়াছেন । আত্মা ১৮৬৫ সালে ভবানীপুরের একটী ভদ্রসন্তান গুরুতর অ ། পরাধ করিয়া দ্বীপান্তরে যান। সেই ঘটনায় তখনকার লোকেদের মন লাগে । “নিৰ্বাসিতের বিলাপ” নাম দিয়া একটী কবিতা ‘সোমপ্রকাশে ছাপিবার জন্য দেন। সেই কবিতাগুলি পাঠ করিয়া শিকনাথের DBL DBBK BDD DB BEB SDD BDBDB sBBDDS DDD