পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/১৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অষ্টম অধ্যায়। ভারতাশ্রম । যে সময় ভারতবর্ষীয় ব্ৰাহ্মসমাজ প্রতিষ্ঠিত হয়, সেই সময় কলিকাতার স্থানে স্থানে পরিবারিক সমাজ প্ৰতিষ্ঠিত হইয়াছিল। কাশীশ্বর মিত্ৰ শ্যামবাজার ব্ৰাহ্মসমাজ, এবং মণিলাল মল্লিক gभखिाँय সিন্দুরিয়াপটীর ব্ৰাহ্মসমাজ প্ৰতিষ্ঠা করিয়াছিলেন। জাহ্মসমাজে মণিলাল মল্লিক' আদি ব্ৰাহ্মসমাজচ্যুক্ত ছিলেন । প্রথম আচ- হঁহারই পুত্রদ্বয গোপালচন্দ্ৰ মল্লিক, নেপালচন্দ্ৰ **" মল্পিক উত্তরকালে ব্রাহ্মসমাজে বিশেষ পরিচিত হইয়াছিলেন। শিবনাথের দীক্ষাগ্ৰহণের কিছুদিন পরেই শ্যামবাজার ব্ৰাহ্মসমাজের উৎসব উপস্থিত। সে সময় কাশীশ্বরবাবু জীবিত ছিলেন। দ্বিজেন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং পাকড়াশী মহাশয়ের সে উৎসবে আচাৰ্য্যের কাৰ্য্য করিবার কথা ছিল। কাশীশ্বরবাবু শিবনাথকে অনুরোধ করিয়া পাঠাইলেন যে, উৎসবে তাকে দ্বিজেন্দ্ৰবাবুও পাকড়াশী মহাশয়ের সঙ্গে বেদীতে বসিতে হইবে। শিবনাথের উপর উপদেশ দিবার ভার ন্যস্ত হইল। ইতিপূর্বে শিবনাথ কখন ব্ৰাহ্মসমাজে মুখ খুলিয়া কিছু বলেন নাই, লজ্জা ও ভয়ে অভিভূত হইয়া পড়িলেন ; কিন্তু অসম্মত হইলেন না । উপদেশটী লিখিয়া পড়িলেন । কিন্তু সে দিনকার উপদেশ এমন চমৎকার হইল যে বেদী হইতে নামিতে না নামিতে দ্বিজেন্দ্রবাবু কোলাকুলি করিয়া শিবনাথের উপদেশের অনেক প্ৰশংসা করিলেন । শ্রোতাগণ সকলেই পরম শ্ৰীত হইলেন। ২১ বৎসর বয়সে এই শিবনাথের প্রথম আচাৰ্য্যেৱ