পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/২৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SNY শিবনাথ-জীবনী । হইয়া, সারাদিন এক অক্লান্তভাবে রন্ধন করিয়া উঠিতেন। লোকে যখন “ধন্য ধন্য” বলিত তখন সারাদিনের ক্লাস্তি অবসাদ নিমেষে ভুলিয়া যাইতেন। সারাদিন হাড়ভাঙ্গা শ্রমের পর নিজে কিছুই খাইতে পাবিতেন না, তবু প্ৰসন্নমুখে গৃহে আসিয়া মনে করিতেন, এমনি করিয়া প্ৰতিদিন খাটিতে হইলেও কোন দুঃখ नाई। গোলোকমণি দেবী অতিশয় সুনিপুণ গৃহিণী ছিলেন। তিনি প্ৰসন্নময়ীকে অতিশয় কাৰ্য্যকুশলা করিযী তুলিয়াছিলেন কম্মেই প্ৰসন্নময়ীর আনন্দ ছিল । আর ছিল প্ৰসন্নময়াল সদানন্দ প্রকৃতি । তিনি সর্বদাই প্ৰসন্নমুখে থাকিতেন, সৰ্ব্বদাই হাসিতেন। অতিরিক্ত হাসিব জন্য শাশুড়ী তিবস্কার করিয়া বলিতেন, SSDBBDBBB BDBD SDuuDSBDSDD DBDBDS DD BBD uBBDBDS DD DuDSDuDB BBD DB DBB DB 0 S BBB DBBB BB DDSDD DD S ঠাব ১৫ বৎসর বয়সে শিবনাথ দ্বিতীয়বার বিবাহ করিলেন । স্বামী আবার বিবাহ করিতে যাইতেছেন শুনিয়া তিনি কিছুমাত্র দুঃখিত হইলেন না। কাবণ তখনও স্বামীর সঙ্গে তার কোন পরিচয় ছিল না । কি আশ্চৰ্য্য বিধাতার বিধান ! দ্বিতীয়বার বিবাহ করিবার পর একমাস যাইতে না যাইতে শিবনাথের মনে EDDBu DBB BBuBD DDS SDD DDBDD DBBu KSEBBB DD S uuD BB SS DBBD S DDBD BDDD DBD DY0 আসিয়া দিদিমার কোলে কঁাদিয়া পড়িলেন। তখন সেখানে sBDBBDDS BuSLDD DDBD DBB BDBuL CDBBD S SED আর তখন আনন্দ ধরে না, তিনি আকাশের চাদ হাতে পাইলেন । প্ৰসন্নময়ীর গাল টিপিয়া আদর করিয়া বলিলেন, “ও নাত ৰীে,