পাতা:বঙ্কিমচন্দ্রের উপন্যাস গ্রন্থাবলী (তৃতীয় ভাগ).djvu/২৩২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


سواني মেয়েমানুষ হইয়৷ ডাকাইতি করে ? প্রকাণ্ডে জিজ্ঞাসা করিল, “এই ষে তাহার সঙ্গে কথা কহিতেছিলাম— তিনি কোথায় ?” সুন্দরী বলিল, “তোমাকে আসিতে অনুমতি দিয়া তিনি শুইতে গিয়াছেন । রাণীকে তোমার কি প্রয়োজন ?” ব্র । তুমি কে ? সুন্দরী । তোমার মুনিব । “আমার মুনিব ?” সুন্দরী । জান না, এইমাত্র তোমাকে এক কড়া কাণ কড়ি দিয়া কিনিয়াছি ? ব্র । সত্য বটে। তা আশীৰ্ব্বাদ করিব ? সুন্দরী । আশীৰ্ব্বাদের কি ? ব্র । স্ত্রীলোকের পক্ষে আছে । সধবাকে এক রকম আশীৰ্ব্বাদ করিতে হয়,—বিধবাকে অন্তরূপ । পুত্রবতীকে — সুন্দরী । আশীৰ্ব্বাদ কর । ত্র । সে আশীৰ্ব্বাদ আমি কাহাকেও করি না । তোমার একশ তিন বছর পরমায়ু হৌক । সুন্দরী। অামার বয়স পচিশ বৎসর । আটাত্তর বৎসর ধরিয়া তুমি আমার ভাত রাধিবে ? ব্র । আগে এক দিন ত রাধি । খেতে পার ত না হয় আটাত্তর বৎসর রাধিব । মুন্দরী । তবে বসো—কেমন রাধিতে জান, পরিচয় দাও । ব্ৰজেশ্বর তখন সেই কোমল গালিচার উপর তোমাকে কি বলিয়া রকম আছে না আমাকে “শীগগির মর” বলিয়া বসিল । সুন্দরী জিজ্ঞাসা করিল, “তোমার নাম কি *" ব্র । তা ত তোমরা সকলেই জান, দেখিতেছি । আমার নাম ব্রজেশ্বর । তোমার নাম কি ? গল। অত মোটা করিয়া কথা কহিতেছ কেন ? তুমি কি চেন। মানুষ ? সুন্দরী । আমি তোমার মুনিব—আমাকে ‘আপনি "মশাই’ আর ‘আজ্ঞে বলিবে । ব্র । আজ্ঞে, তাই হবে, আপনার নাম ? স্বন্দরী । আমার নাম পাঁচকড়ি । কিন্তু তুমি আমার তৃত্য, আমার নাম ধরিতে পারিবে না। বরং বল ত আমিও তোমার নাম ধরিব না । ব্র । তবে কি বলিয়া ডাকিলে আমি “আজ্ঞা” বলিব ? বঙ্কিমচন্দ্রের গ্রন্থাবলী পাচকড়ি। আমি "রামধন” বলিয়া তোমাকে ডাকিব, তুমি আমাকে “মুনিবঠাকুরুণ” বলিও । এখন তোমার পরিচয় দাও—বাড়ী কোথায় ? ব্র । এক কড়ায় কিনিয়াছ—অত পরিচয়ের প্রয়োজন কি ? পাচ । ভাল, সে কথা নাই বলিলে । রঙ্গরাজকে জিজ্ঞাসা করিলে জানিতে পারিব । রাঢ়ী, না বারেন্দ্র, না বৈদিক ? ব্র । হাতের ভাত ত খাইবেন—ষাই হই না । পাচ । তুমি যদি আমার স্বশ্রেণী না হও— তাহা হইলে তোমাকে অন্ত কাজে দিব । ব্ৰ । অন্ত কি কাজ ? পাচ । জল তুলিবে—কাঠ কাটিবে—কাজের অভাব কি ? ব্র । আমি রাঢ়ী । - পাচ । তবে তোমায় জল তুলিতে, কাঠ কাটিতে হইবে । আমি বারেন্দ্র । তুমি রাঢ়ী-কুলীন না বংশজ ? ব্র । এ কথা ত বিবাহের সম্বন্ধের জন্যই প্রয়োজন হয় । সম্বন্ধ যুটিবে কি ? আমি কৃতদার। পাচ । কৃতদার ? কয় সংসার করিয়াছ ? ব্র । জল তুলিতে হয়—জল তুলিব—অত পরিচয় দিব না । তখন পাঁচকড়ি দেবীরাণীকে ডাকিয় বলিল, “রাণীজি ! বামুন ঠাকুর বড় অবাধ্য । কথার উত্তর দেয় না ।” নিশি অপর কক্ষ হইতে উত্তর করিল, “বেত লাগাও ” তখন দেবীর এক জন পরিচারিক শপাৎ করিয়া এক গাছ লিকুলিকে সরু বেত পাচকড়ির বিছানায় ফেলিয়৷ দিয়া চলিয়া গেল। পাচকড়ি বেত পাইয়া ঢাকাই রুমালের ভিতর মধুর অধর চারু দন্তে টিপিয়া বিছানায় বার দুই বেতগাছ আছড়াইল । ব্ৰজেশ্বরকে বলিল, “দেখিয়াছ *" ব্ৰজেশ্বর হাসিল । বলিল, “আপনার সব পারেন । কি বলিতে হইবে, বলিতেছি।” পাঁচ। তোমার পরিচয় চাই না—পরিচয় লইয়া কি হইবে ? তোমার রান্না ত খাইব না। তুমি আর কি কাজ করিতে পার বল ? ত্র । হুকুম করুন । পাচ । জল তুলিতে জান ? ত্র । না । পাচ । কাঠ কাটিতে জান ?