পাতা:বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস (ব্রাহ্মণ কাণ্ড, প্রথমাংশ).djvu/১৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষষ্ঠ অধ্যায় ষষ্ঠ পরিচ্ছেদ ( সমী-কুলীনসমাজের সমালোচনা । কুলীনগণের ইতিহাস যতই আলোচনা করি, ততই দেখি, শ্রদত্তখাস মহাশয়ের পূর্ব হইতেই কুলীন-সমাজের অধঃপতন আরম্ভ হইয়াছে। অধঃপতন কেন বলি ? বাস্তবিক কি রাঢ়ীয়-ব্রাহ্মণ-সমাজ কৌলীন্য প্রথায় উন্নত হইয়াছিলেন ? প্রকৃত কি কুলবিধি হইতে কুলীন গণের কোন প্রকার উপকার সাধিত হইয়াছিল ? ইহার যথাযথ উত্তর ८क प्ति ? ইহার উত্তর দেওয়া সহজ নহে। তবে আমাদের ক্ষুদ্র বুদ্ধিতে যেরূপ বুঝিয়াছি, সংক্ষেপে তাছাই বলিব । o - সেনরাজগণের অভু্যদয়ের পূৰ্ব্বে বৌদ্ধদিগের প্রবল প্রতাপে হিন্দুসমাজ অবস্থায় হইয় পড়িয়াছিল। একেত গৌড়দেশে বহু পূৰ্ব্ব হইতে নীচজাতীর প্রভাব ছিল । তাহার পব tननब्रांखशप्पंद्र शूर्विउन গৌড়ের পরাক্রান্ত পালরাজগণের প্রভাবে গৌড়বাসী ব্রাহ্মণেতর সমাজ । প্রায় সকল জাতিই বৌদ্ধধৰ্ম্মানুরাগী হইয়াছিল । অধিকাংশ নীচ জাতিই বৌদ্ধ-ধৰ্ম্ম গ্রহণ করিয়াছিল। রাঢ়াধিপ, পুনরপতিগণের উৎসাহে ও এখানকার ধৰ্ম্মনিষ্ঠ ব্রাহ্মণগণের যত্নে অনেকের মতিগতি ফিরিখেছিল বটে, কিন্তু ভাগীরথীর উত্তর ও পূৰ্ব্বদেশবাসীর উপর, তখনও সম্পূর্ণ বৌদ্ধ-অধিকার ২ সেনরাজগণ যখন সমস্ত গৌড়ের অধীশ্বর হইলেন, বৌদ্ধধৰ্ম্ম ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের প্রতি যতই তাহাদের বিদ্বেষত প্রকাশ পাইতে লাগিল, ততই বৌদ্ধগণ হীনবল হইতেছিলেন। সাধারণ লোকেরও বৌদ্ধ-ধৰ্ম্মের উপর ততই আস্থা কমিতে ছিল। বৌদ্ধদিগের মধ্যে ব্রাহ্মণ, ক্ষত্রিয় ও বৈষ্ঠ এই তিন বর্ণই আচাৰ্য্য ছিলেন। হিন্দুগণ যেরূপ স্ব স্ব গুরু পুরোহিত ব্রাহ্মণদিগকে ভক্তি করিয়া থাকেন, বেীন্ধ জনসাধারণ সেইরূপ উক্ত আচাৰ্যদিগকে ভক্তিও শ্রদ্ধা করিতেন। ঐ সকল আচাৰ্য্যগণ বহুকাল হইতে বৌদ্ধ-সমাজে ব্রাহ্মণোচিত সন্মান লাভ করিয়া আসিতেছিলেন। এখন সেনরাজগণের শাসন-ভয়ে অথবা অনুগ্রহ লাভাশায় তাহারা ধীরে ধীরে হিন্দুসমাজে প্রবেশ করিতে লাগিলেন। এরূপে কত লোক ुरु शन श्हेप्ड अछ शय्न গিয়া হিন্দুসমাজে মিশিয়া ব্রাহ্মণ বলিয়া পরিচয় দিতে আরম্ভ করিলেন। বিচক্ষণ সেনরাজগণ যে তাহদের গতিবিধির উপর লক্ষ্য রাখেম নাই, তাছাই tरीकांफ्रांर्ष-मनंtछ । (*) विकूनूबॉ१ 8र्ष जश्नं २४ ७: । (९) { बांtब्रद्धा बांझर्ण-विवब्र१ ७ कांब्रइकांt७ "ांनषरानंब्र विषब्र१ जड़ेद ।