পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২৬৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২২৪ সনাতনের অভিযোগ ও মহাপ্রভুর উত্তর। বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । আমার উপদেষ্ট তুমি প্রামাণিক আৰ্য্য। তোমাকে উপদেশে বাল্কা করে ঐছে কাৰ্য ৷ শুনি পাএ ধরি সনাতন প্রভুকে কহিল । জগদানন্দের সৌভাগ্য আজি সে জানিল ৷ আপনার দৌর্ভাগ্যের আজি হৈল জ্ঞান। জগতে নাহি জগদানন্দ-সম ভাগ্যবান ॥ জগদানন্দে পীয়াও আত্মীয়তা-সুধাধারে । মোরে পীয়াও গৌরব-স্তুতি নিম্ব-নিসিন্দা-সারে । আজিহ নহিল মোরে আত্মীয়ত-জ্ঞান । মোর অভাগ্য তুমি স্বতন্ত্র ভগবান ॥ শুনি মহাপ্রভূর কিছু লজ্জিত হৈল মন । তারে সন্তোষিতে কিছু বোলেন বচন ॥ জগদানন্দ প্রিয় আমার নহে তোমা হৈতে। মৰ্য্যাদা-লঙ্ঘন আমি না পারি সহিতে ॥ কাহা তুমি প্রামাণিক শাস্ত্রেত প্রবীণ। কাহা জগাই কালিকার বটুয়া নবীন। আমাকেহ বুঝাইতে ধর তুমি শক্তি। কত ঠাঞি বুঝাইয়াছ ব্যবহার-ভক্তি ॥ তোমাকে উপদেশ করে না যায় সহন। অতএব তারে আমি করিএ ভৎসন। বহিরঙ্গ-বুদ্ধে তোমায় না করি স্তবন। তোমার গুণে স্তুতি করায় ঐছে তোমার গুণ ॥ ষদ্যপি কারো মমতা বহুজনে হয়। প্রতের স্বভাবে কাহাতে কোনো ভাবোদয় ॥ তোমার দেহে তুমি কর বীভৎসের জ্ঞান। তোমার দেহে আমাকে লাগে অমৃত-সমান ॥ অপ্রাকৃত দেহ তোমার প্রাকৃত কতু নয় । তথাপি তোমার তাতে প্রাকৃত বুদ্ধি হয় ॥ প্রাকৃত হৈলে তোমার বপু নারি উপেক্ষিতে। ভদ্রাভদ্র বস্তু-জ্ঞান নাহিক প্রকৃতে ॥ দ্বৈত ভদ্রাভদ্র-জ্ঞান সব মনোধৰ্ম্ম । এই ভাল এই মন্দ এই সব ভ্ৰম ॥