পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৪০৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাজকুমারীর মনে মনে বিদায়-গ্রহণ । বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । মোরে খু্যা মাঝখানে রাণীগণ চারি পানে বসিয়াছে অভাগীরে ঘেরি। কেহো না পালটে আখি যেমন চাতক পার্থী রয়েছে আমার মুখ হেরি ॥ অঞ্চলে বক্ষ কেহ মুছিয়া দিতেছে দেহ কেহো মুখে যোগাইছে পাণ। কার চক্ষে নাহি ঘুম কেহ বা দিছেন চুম কোন মাএ চামর চুলান ॥ কেহ বাছা বাছা বলে কেহ বা করিছে কোলে কোন মাএ করিছে উলাল। এ সব মায়া ধরিয়া মানুষীর কায় কেমনে কাটিব মায়া-জাল ॥ যখন তোমার সাথ সত্য করিয়াছি নাথ সত্য অবশ্য হইব বাহির । ফকীর রাম দাসে বলে শুনিঞা বকুল-তলে কোঙর হইল মনঃস্থির ॥ আশীৰ্ব্বাদ কৱগো অভাগীর শত মা । অভাগীর মাথায় সভাই দেহ পা ৷ আজি হৈতে আর না হবেক দেখা শুন । মাপ কর হাম অভাগীর যত গুণ ॥ এত দিনে ঘুচিল সকল লীলা-খেলা। দর্যাএ (১) ভাসিল আজি অভাগীর ভেলা ॥ অভাগীর লাগিয়া তিলেক নাই কান্দ্যো । আপনাকে প্রবোধ মানিঞ বুক বান্ধ্যো ॥ ছত্ৰ দণ্ড আড়ানী ফেলিয়া দিহ জলে । সিংহাসন পালঙ্ক পোড়ায় দাবানলে । ব্রাহ্মণেরে দিহ মোর যত পুথি পাজি। চৌপায়ীতে (২) আগুন মেটায়্যা দিহ আজি । দান কর্যো কাঞ্চন-কটোরা-ঝারি-থালা । ফেল্য দিহ জলেতে পেটারি দৃষ্টি-জাল ॥ (>) बिशब=नीड। (২) চৌপায়ী =খট্ট।