পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৫৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>Q> o বিরহের পর মিলন। বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । লোচনে রহিছে ঘোর ঘুমের আলিস। অরুণে অরুণ আখি হেরিয়া বালিস ॥ ভ্ৰভঙ্গে কটাক্ষ রামা ছাড়য়ে সমুখ। গুচ্ছেদ হইলে যেন কামের কাক । দিবাকর হেরি চলি চন্দ্রভান যায়। ক্ষীণ কুমুদিনী দেখি আখি মুদে তায় ॥ হরি স্মরি সানন্দেতে পালঙ্কে বসিল । ফির্যা চায়্যা চায়্যা রায় বাহিরে চলিল ॥ সখী-সনে রজনী-সংবাদ কহে ধনী। ভ্রষ্ট ওষ্ঠাধর-রাগ আলুয়াইছে বেণী ॥ এদিগে সেদিগে মতি-মাল-জাল ছিড়া । ছিন্ন সিন্দুরের বিন্দু চন্দনেতে বেড়া। নাগর বাহিরে আসি ভেটি বন্ধুগণ। বিবিধ বিধানে করি ইষ্ট আলাপন ॥ নানাবিধ করে কত বিধিবৎ দান। নানা রস করি মুখে পূজে ভগবান ॥ এক রাত্রে চন্দ্রভান স্থনেত্রীর সঙ্গে । মহানন্দে চন্দ্ৰ যেন রোহিণীতে রঙ্গে ৷ বসি অট্টালিকা-পরে অঙ্গ হরষিতে। স্বশ্বেত শয্যাতে সুখে হাসিতে হাসিতে ॥ শ্বেত মছলদেতে হেলি বসি করে গান। সুনেত্রা কোমল করে যোগাইছে পাণ ৷ উদিত বসন্ত-শশী সুকোমল করে। যে করে সংযোগী (১) জীয়ে বিয়োগিনী মরে ॥ যা দেখিয়া সবল্লভা বিয়োগিনী-বাদ। এ বলে সুধার খণ্ড ও বলে প্রমাদ ॥ (২) এ বলে এ শীতকর ও বলে তপন । অস্থাপি সন্দেহ যাহার নহিল ভঞ্জন ॥ (১) পতি-সহ মিলিত রমণী । (২) বসন্তকালের চন্দ্র দেখিয়া পতি-সঙ্গিনী তাহাকে সুধার খণ্ড মনে করেন, বিরহিণী তাহ প্রমাদ ( বিপদের কারণ ) মনে করেন।